কেনিয়ার ধর্মীয় গোষ্ঠীর নেতা ১৯১ শিশু হত্যায় অভিযুক্ত

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

একতা বিদেশ ডেস্ক : কেনিয়ার ধর্মীয় গোষ্ঠীর নেতা পল ম্যাকেঞ্জি ও তাঁর ২৯ সহযোগীকে ১৯১টি শিশু হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে। দেশটির পূর্বাঞ্চলের শাকাহোলা জঙ্গলে পুঁতে রাখা শত শত মানুষের মরদেহের মধ্যে এসব শিশুর লাশ পাওয়া যায়। ভারত মহাসাগরের কাছের কেনিয়ার উপকূলীয় শহর মালিন্দির একটি আদালতে আনা অভিযোগ এই আসামিদের সবাই অস্বীকার করেন। মানসিকভাবে অযোগ্য হওয়ায় এক সন্দেহভাজনকে বিচারের মুখোমুখি করা যায়নি। তাঁকে এক মাসের মধ্যে মালিন্দি হাইকোর্টে হাজিরের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা বলেছেন, ম্যাকেঞ্জি তাঁর অনুসারীদের, তাঁদের সন্তানদের না খেয়ে মারা যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন, যাতে তাঁরা বিশ্ব ধ্বংসের আগে স্বর্গে যেতে পারেন। সাম্প্রতিক ইতিহাসে ধর্মীয় গোষ্ঠী-সম্পর্কিত বিশ্বের সবচেয়ে বাজে বিপর্যয়গুলোর একটি এই ঘটনা। ম্যাকেঞ্জি ছিলেন ট্যাক্সিচালক। পরে তিনি স্বঘোষিত গির্জা যাজক বনে যান। ম্যাকেঞ্জিকে ইতিমধ্যে সন্ত্রাসবাদ, নরহত্যা, শিশু নির্যাতন ও নিষ্ঠুরতার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে। ময়নাতদন্তে দেখা গেছে, শাকাহোলা জঙ্গল থেকে যে ৪২৯ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, তাঁদের বেশির ভাগই ক্ষুধার কারণে মারা গেছেন। তবে শিশুসহ অন্যদের গলা টিপে, মারধর বা শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে দৃশ্যমান হয়। মামলাটিকে ‘শাকাহোলা জঙ্গল নৃশংস হত্যাকাণ্ড’ নামে অভিহিত করা হচ্ছে। ঘটনাটি দেশটির ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোকে সরকারের কঠোর নিয়ন্ত্রণের আওতায় আনার প্রয়োজনীয়তাকে সামনে এনেছে। কেনিয়া অধিকাংশ মানুষ খ্রিষ্টধর্মাবলম্বী। অসাধু ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোর অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে দেশটির কর্তৃপক্ষকে বেগ পেতে হচ্ছে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..