শিক্ষার এই ক্রান্তিলগ্নে ছাত্র ইউনিয়নকেই হাল ধরতে হবে

Posted: 07 জানুয়ারী, 2018

পিরোজপুর সংবাদদাতা : তরুণ প্রাণের অগ্নিবানে কাটুক আঁধার রক্ষা পাক প্রাণ-প্রকৃতি, নিশ্চিত হোক শিক্ষার অধিকার’ এই স্লোগানকে ধারণ করে পিরোজপুর জেলা ছাত্র ইউনিয়নের ২০তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৩০ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১০টায় গোপালকৃষ্ণ টাউন ক্লাব মাঠে সম্মেলন উদ্বোধন করেন সাবেক ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রুহিন হোসেন প্রিন্স। এতে অতিথি ছিলেন সাবেক ছাত্র নেতা ও পিরোজপুর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ডা. তপন বসু, শিক্ষক অভিনু কিবরিয়া ইসলাম, ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় সভাপতি জিএম জিলানী শুভ, ঢাকা মহানগর সভাপতি দীপক শীল এবং সভাপতিত্ব করেন খ.ম মিরাজ ও সঞ্চালনায় শান্তানু হালদার। সমাবেশে বক্তব্য দেন সিপিবি জেলা শাখার সভাপতি দিলীপ কুমার পাইক, সাবেক ছাত্র নেতা অ্যাডভোকেট বাহাদুর হোসেন। বক্তারা বলেন, বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থা এমন এক পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে যে বিশে^র দরবারে একটি মেরুদণ্ডহীন জাতি হিসাবে আমাদের দাঁড় করিয়ে দিচ্ছে। বাংলাদেশে এমন কোনো পাবলিক পরীক্ষা নেই যার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয় না এবং দেশের শিক্ষা ব্যবস্থাও চলছে বাণিজ্যিকরণ ও বৈষম্যের শিক্ষানীতি, যার টাকা আছে তার জন্য উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থা আর যার টাকা নেই সে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এই বাণিজ্যিকরণ ও বৈষম্যের শিক্ষানীতিকে ছাত্র ইউনিয়নকেই রুখতে হবে। যেমন ১৯৫২ ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ৬২র শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬র ছয় দফা, ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান, ৭১এর মুক্তিযুদ্ধের বিশেষ গেরিলা বাহিনী, ৯০ এর সৈ¦রাচারবিরোধী আন্দোলনসহ দেশের প্রতিটি আন্দোলনে ছাত্র ইউনিয়ন অগ্রজ ভূমিকা পালন করেছিল, ঠিক তেমনি দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার এই ক্রান্তিলগ্নে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। সম্মেলন সমাবেশ শেষে গোপালকৃষ্ণ টাউন ক্লাবে কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কাউন্সিলে শান্তনু হালদারকে সভাপতি, শাহানা মুন্নিকে সাধারণ সম্পাদক ও ইমন চৌধুরীকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। নতুন কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করান সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি জিএম জিলানী শুভ।