২৭ জেলায় কৃষকবন্ধন

Posted: 03 ডিসেম্বর, 2017

একতা প্রতিবেদক : হাওর অঞ্চলসহ দেশের অন্যান্য জেলায় সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের ভর্তুকি ও ঋণ মওকুফ, ফসলের লাভজনক দাম, ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকারি ক্রয়কেন্দ্র চালু, বিএডিসিকে সক্রিয় করা, পল্লী রেশন ও শস্য বীমা চালু, সবজি সংরক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত সরকারি কোল্ড স্টোরেজ নির্মাণ, পল্লী বিদ্যুৎ ও ভূমি অফিসের অনিয়ম-হয়রানি-দুর্নীতি বন্ধের দাবিতে ২৫ নভেম্বর পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া থেকে কক্সবাজার এবং খুলনার রূপসা থেকে পদ্মা (কাঁঠালবাড়ি ও দৌলতদিয়া) পর্যন্ত কৃষকবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৭ জেলার মহাসড়কজুড়ে ব্যাপক সংখ্যক কৃষকের উপস্থিতিতে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কর্মসূচির সংহতিতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কৃষকনেতা মোর্শেদ আলীর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী সাজ্জাদ জহির চন্দন, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নুরুর রহমান সেলিম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শামসুজ্জামান হীরা, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মাহবুব আলম, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি লাকী আক্তার, শ্রমিকনেতা আক্তার হোসেন। সমাবেশ পরিচালনা করেন কেন্দ্রীয় সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য আবিদ হোসেন। কর্মসূচিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা ও দলীয় লোকজনের দুর্নীতিতে তৈরি হাওর রক্ষাবাঁধ আগাম বন্যায় ভেসে হাওর অঞ্চলের ৭টি জেলায় প্রায় সবগুলো উপজেলার কৃষি জমি ও ফসল তলিয়ে ও গবাদীপশুর প্রাণহানীতে কৃষক সর্বশান্ত হয়ে যায়। এরইমধ্যে দেশের প্রায় ৪০টি জেলায় বন্যায় কৃষকের কৃষিজমি, ফসল, ঘরবাড়ি তলিয়ে যায় ও গবাদী পশুর প্রাণহানি ঘটে। ফলে কৃষক নিঃস্ব হয়ে বন্যা পরবর্তী বোরো ধানসহ অন্যান্য ফসল বপন করতে দিশাহারা হয়ে পরে। সরকার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের ক্ষতিপূরণ ও ঋণমওকুফের ঘোষণা দিলেও এখনও তা পূরণ করেনি। এছাড়াও বিএডিসির ধানবীজ গত বছরের চেয়ে কেজি প্রতি ১৫ টাকা বৃদ্ধি করে। ফলে গরীব কৃষক আরো ঋণগ্রস্ত হয়ে পরে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ভর্তুকি ও ঋণ মওকুফ, ফসলের লাভজনক দাম প্রদান, ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকারি ক্রয়কেন্দ্র চালু, বিএডিসিকে সক্রিয় করা, শষ্যবীমা ও পল্লীরেশন চালু, সবজি সংরক্ষণের জন্য সবজি অঞ্চলে পর্যাপ্ত সরকার কোল্ড স্টোরেজ নির্মাণ, পল্লীবিদ্যুৎ ও ভূমি অফিসের অনিয়ম-হয়রানি দুর্নীতি বন্ধের দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ বলেন, এই অবস্থা থেকে কৃষি ও কৃষককে রক্ষা করতে হলে উৎপাদন ও বিপণন পর্যায়ের সকল মধ্যস্বত্তভোগীদের উচ্ছেদ করতে হবে এবং রাস্তায় সকল ধরনের চাঁদাবাজী বন্ধ করতে হবে। কৃষি ও কৃষক বাচাতে কৃষক সমিতির দাবিসমূহ মানতে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। এজন্য সারা দেশে শক্তিশালী সংগঠন গড়ে তোলার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানান নেতৃবৃন্দ। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পাঠানো সংবাদ: পঞ্চগড় : তেতুলিয়া চৌরাস্তায় পঞ্চগড় জেলার সভাপতি প্রবীণ কৃষকনেতা এম এ হান্নানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হোসেন খান, রেজাউল ইসলাম, এরশাদ হোসেন সরকার, আতাউর রহমান, মহেন্দ্র নাথ সরকার প্রমুখ। ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁও পুরাতন বাসস্ট্যান্ডের কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন ইসমাইল হোসেন, ইয়াকুব আলী, অধীর কুমার রায় প্রমুখ। দিনাজপুর: শহরতলীর বটতলায় কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সহসভাপতি আলতাফ হোসাইন, বদিউজ্জামান বাদল, ডাঃ গকুল চন্দ্র রায়, আবুল কালাম আজাদ, ইকবাল হাসান সিদ্দিকী, অমৃত কুমার রায় প্রমুখ। লালমনিরহাট: শহরের মিশন মোড়ে কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কৃষকনেতা অ্যাডভোকেট মধুসুদন রায়, সিপিবি নেতা রফিকুল ইসলাম, রনজিত কুমার রায়, ছাত্রনেতা নবীন্দ্র নাথ রায় প্রমুখ। রংপুর : টার্মিনালে জেলা সভাপতি চন্দন ঘোষের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ কমিউনিস্ট নেতা শাহাদাৎ হোসেন, আব্দুল জলিল সরকার, শাহীন রহমান, মফিজুল ইসলাম, নৃপেন রায়, প্রদীপ রায় প্রমুখ। বগুড়া: শহরের সাতমাথায় আয়োজিত কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কৃষকনেতা হাসান আলী শেখ ও সিপিবি নেতা আমিনুল ফরিদ। সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের ঘুড়কায় জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট হেদায়েতুল ইসলামের সভাপতিত্বে কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কৃষকনেতা ইসমাইল হোসেন, দীলিপ সরকার, আমজাদ হোসেন, ক্ষেতমজুর নেতা প্রদীপ ভৌমিক, সাংবাদিক মুস্তফা নূরুল আমিন, সংগীত শিল্পী আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ। টাঙ্গাইল: এলেংগা বাইপাসে কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কৃষক নেতা অহিদুজ্জামান মতি, মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ ভিপি, হাবিবুর রহমান, ফেরদৌসি বেগম, হাবিব মণ্ডল, আব্দুর রশিদ কান্দু প্রমুখ। নারায়ণগঞ্জ: কাচপুরে কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আসাদুল্লাহ টিটু, সাবেক ছাত্রনেতা শরিফুজ্জামান শরিফ, শিবনাথ চক্রবর্তী, মনিরুজ্জামান চন্দন, জিয়া হায়দার ডিপুটি প্রমুখ। কাপাসিয়া: উপজেলার বাসস্ট্যান্ডে কৃষক সমিতি নেতা মন্জুরুল হক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিপিবি নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন, উদীচী সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমীন সিকদার, সিপিবি উপজেলা সম্পাদক ছিদ্দিক ফকির, মাতাবর রহমান, মো. ছিদ্দিকুর রহমান, সাংবাদিক সাইদুল ইসলাম রনি, সাংবাদিক মজিবুর রহমান প্রমুখ। কুমিল্লা: কুমিল্লার চান্দিনাতে কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা সুজাত আলী, নূর আহাম্মদ ও স্থানীয় কৃষক নেতৃবৃন্দ। চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের পটিয়া, চন্দনাইশ ও সাতকানিয়াতে আয়োজিত কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য প্রবীণ কৃষকনেতা আব্দুন নবী, তাজুল মুলুক, পুলক কুমার দাশ, আবুল কালাম চাষি প্রমুখ। চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কমিটির উদ্যোগে বিকাল ৩টায় কে.সি.দে রোডস্থ সিনেমা প্লেইসের সামনে কৃষক বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি অ্যাড. কামাল সাত্তার চৌধুরীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ক্ষেতমজুর নেতা অমৃত বড়ুয়া, প্রাক্তন ছাত্র নেতা রবিউল হোসেন, কৃষক সমিতি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কমিটির সংগঠনিক সম্পাদক নুরুল মোস্তফা। আরও উপস্থিত ছিলেন অমর সাত্তার পাঠাগারের সম্পাদক অমিতাভ সেন, হোটেল শ্রমিক নেতা সেকায়েত উল্লাহ, মো: শাহাজান, শ্রমিক নেতা নুরুল মোস্তফা প্রমুখ। কক্সবাজার: জেলার রামুতে কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নাসির উদ্দিনসহ স্থানীয় কৃষক নেতৃবৃন্দ। খুলনা: রুপসায় কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য নিমাই গাংগুলী, শেখ আব্দুল হান্নান, রুহুল আমিন, কিশোর কুমার রায়, এস এ রশিদ প্রমুখ। বাগেরহাট: কেন্দ্রীয় সহসভাপতি প্রবীণ কৃষকনেতা কাজী সোহরাব হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ডাঃ খান সেকান্দর আলীসহ স্থানীয় কৃষক নেতৃবৃন্দ। ফরিদপুর: ফরিদপুর মধুখালী, সদর ও ভাংগায় আয়োজিত কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট মানিক মজুমদার, আতাউর রহমান কালু, রফিকুজ্জামান লায়েক, কানাই গাংগুলী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সুধীন কুমার সরকার মংগল, জেলা সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান লাল্টু, সুভাস মণ্ডল প্রমুখ। মাদারীপুর: টেকেরহাট ও কালকিনিতে কৃষক বন্ধনে বক্তব্য দেন জেলা কমিটির আহব্বায়ক পলাশ রায়, নজরুল ইসলামসহ স্থানীয় কৃষক নেতৃবৃন্দ। রাজবাড়ি: সদর ও দৌলতদিয়ার কৃষকবন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সদস্য আব্দুস সাত্তার মন্ডলসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জের কৃষকবন্ধনে কর্মসূচিতে জেলা কৃষক সমিতির সভাপতি মজিবুর রহমান মাস্টার এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কৃষক সমিতির সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আজাহারুল ইসলাম আরজু, সহ সভাপতি দুলাল বিশ্বাস, ক্ষেতমজুর সমিতির জেলা সভাপতি আব্দুল মান্নান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, সিপিবি জেলার সভাপতি নুরুল ইসলাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক আরশেদ আলী মাস্টার, সিপিবি জেলা কমিটির সদস্য সংকর প্রসাদ ভৌমিক, হরিপদ মাস্টার, ইমান আলী, আশরাফ সিদ্দিকী, নাসির উদ্দিন, সেতোয়ার হোসেন প্রমুখ। কিশোরগঞ্জ: সিপিবি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ময়মনসিংহ সিপিবির সভাপতি অ্যাড. এমদাদুল হক মিল্লাত, কিশোরগঞ্জ জেলা সিপিবির সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিউল আলম চৌধুরী মিলাদ, জেলা কৃষক সমিতির সভাপতি ডাঃ এনামুল হক ইদ্রিস, সহ-সভাপতি মোস্তফা কামাল নান্দু, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হাসান ইমাম রঞ্জু, সহ-সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা নূরুল হক, জেলা বাসদের সমন্বয়ক অ্যাড. শফীকুল ইসলাম, জেলা ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম সাত্তার, জেলা ক্ষেতমজুর সমিতির সভাপতি সেলিম উদ্দিন খান, কিশোরগঞ্জের কৃষক নেতা নূরুল ইসলাম, করিমগঞ্জের কৃষক নেতা হারুন অর রশিদ, ঝুটন দাশ প্রমুখ। নেত্রকোণা: নেত্রকোণায় কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির আহ্বায়ক আনোয়ার হাসান সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। পাবনা: কৃষক বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আহসান হাবিব সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।