গোস্বা

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : একবার কোনোকিছুতে নাম করে ফেলতে পারলে আর কোনো চিন্তা নেই। তখন চিন্তা যা করার সব মিডিয়ার লোকেরাই করবে। তারাই নানাভাবে খুঁজে খুঁজে সব খভর বের করে নিয়ে আসবে। যাকে কেউ ইহজগতে চিনত না, সেও রাতারাতি স্টার হয়ে যাবে। যেমন এই সময়ে বাংলাদেশ একমাত্র তারকাখচিত তারকা হচ্ছে পেঁয়াজ। তার রূপ-রস-গন্ধের বর্ণনায় অস্থির গণমাধ্যম। তা হোক। যার গুণ আছে, তার গুণকীর্তণ হওয়াই উচিত। কিন্তু এটার একটা ভয়ানক অসুবিধা হচ্ছে, বড় গাছের নীচে আর অন্য গাছদের বেড়ে উঠার কোনো সুযোগ থাকে না। পেঁয়াজের দাম আড়াইশ টাকা কেজিতে গিয়ে ঠেকেছে, এটা আমাদের দেশের জন্য একটা বিরাট বড় গর্বের বিষয়। কিন্তু কেন শুধু তার একাই নাম হবে। রসুন, মূলা, কপি, আলুসহ সব শীতের সবজিও তো নিজেদের মতো করে দাম বারিয়ে নিয়েছে। তাদের নিয়ে তো কেউ কোনো কথা বলে না। ফলে এটাকে ন্যায্য বলা যাচ্ছে না। এই শীতের সময়ে বাজারে সবজির বেশ আমদানি হয়। মানুষ এই সময়টাতে সবজির উপর নির্ভর করে খাবার-দাবারের আয়োজন করে। এবারও বাজারে সেই সবজি আছে, কিন্তু দাম ক্ষেত্র বিশেষে তিনগুন, চারগুনও বেড়ে গেছে। আলু, নামটা যত হেলাফেলার দামে কিন্তু ততোটা না। শীতের নতুন দেশি আলুও সেঞ্চুরি করে ফেলেছে। ফলে সেঞ্চুরি করার পরও যদি কেউ গণমাধ্যমের সামান্যতম জায়গা না পায়, আলুর সমস্ত মাহাত্ব যদি পেঁয়াজের ঝাঁজের নীচে চাপা পড়ে যায়, সেটা কোনো কাজের কথা না। আলু তো একটু গোস্বা করতেই পারে। একই কথা রসুনের ক্ষেত্রে হতে পারে। বেচারা গত কয়দিনে নিজেকে প্রায় দ্বিগুণ দামে নিয়ে ঠেকিয়েছে। কিন্তু তার কৃতিত্বও চাপা পড়ে আছে পেঁয়াজের নীচে। আহারে বেচারা!!

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..