সৌদিতে নারী গৃহশ্রমিক নির্যাতন বন্ধে ব্যবস্থার দাবি

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

মুক্তিভবনে প্রগতিশীলল নারী সংগঠনসমূহের সংবাদ সম্মেলন [ ছবি: রতন দাস ]
একতা প্রতিবেদক : সৌদি আরবে নারী গৃহশ্রমিক নির্যাতন-ধর্ষণ-হত্যা বন্ধ ও প্রবাসী নারী শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে প্রগতিশীল নারী সংগঠনসমূহ (সিপিবি নারী সেল, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম, শ্রমজীবী নারী মৈত্রী, বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র, নারী সংহতি, বিপ্লবী নারী ফোরাম, হিল উইমেন্স ফেডারেশন)। গত ১৫ নভেম্বর সকাল ১১টায় পুরানা পল্টনস্থ মুক্তি ভবনের প্রগতি সম্মেলন কেন্দ্রে সিপিবি নারী সেলের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক লক্ষ্মী চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে এবং সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শম্পা বসুর পরিচালনায় সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য পাঠ করেন শ্রমজীবী নারী মৈত্রীর সভাপতি বহ্নিশিখা জামালী। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন এবং সাংবাদিকবৃন্দের বিভিন্ন প্রশ্নের প্রেক্ষিতে আলোচনা করেন বিপ্লবী নারী ফোরামের আহ্বায়ক আমেনা আক্তার, বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্রের ঢাকা নগর শাখার সভাপতি তাসলিমা আক্তার বিউটি, নারী সংহতির সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল মরিয়ম, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় নেত্রী নীতি চাকমা, সিপিবি নারী সেলের কেন্দ্রীয় নেত্রী লুনা নূর। নারী সংগঠনসমূহ অনতিবিলম্বে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের যেসব দেশে নারী গৃহকর্মীসহ অভিবাসী নারী শ্রমিক পাঠানো হয়েছে তাদের প্রয়োজনীয় আইনী সুরক্ষা, নিরাপত্তা নিশ্চিত, শ্রম আইন ও বিধি অনুযায়ী উপযুক্ত মজুরী আদায়ে কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানায়। তাদের দাবির মধ্যে আরও আছে- অভিবাসী নারী গৃহকর্মী ও শ্রমিকদের শারীরিক মানসিক অত্যাচার ও যৌন নির্যাতন বন্ধে বাংলাদেশ সরকার ও সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের মধ্যে প্রয়োজনীয় দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর ও তার দ্রুত বাস্তবায়ন নিশ্চিত; অভিবাসী নারী গৃহকর্মী ও শ্রমিকেরা যেসব দেশে কর্মরত রয়েছেন সেসব দেশের নিয়োগকর্তাদের নাম, বাড়ি ও কর্মস্থলের বিস্তারিত ঠিকানা, অভিবাসী নারী শ্রমিকদের হালনাগাদ সকল তথ্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে হালনাগাদ রাখা; মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের দুতাবাস ও কনস্যুলেটে অভিবাসী গৃহকর্মী ও নারীশ্রমিকদের অধিকার, মর্যাদা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে সার্বক্ষণিক ডেস্ক চালু, দুতাবাসের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা, যেসকল রিক্রুটিং এজেন্টের মাধ্যমে নারী গৃহকর্মী ও শ্রমিকদেরকে পাঠানো হয় তাদের ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য, কি চুক্তি ও শর্তে নারী গৃহকর্মী ও শ্রমিকদের বিদেশে পাঠানো হচ্ছে তার সুনির্দিষ্ট তথ্যাবলী মন্ত্রণালয়ে রাখা; প্রতারক, রিক্রুটিং এজেন্টদের লাইসেন্স বাতিলসহ তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা, প্রতারিত নারী শ্রমিকদেরকে প্রয়োজনীয় ক্ষতিপুরণ প্রদানে রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোকে বাধ্য করা, কর্মস্থলে আত্মহত্যা, নিহত হওয়া এবং যৌন নিপীড়নসহ শারীরিক মানসিক নিপীড়নের বিরুদ্ধে অভিবাসী শ্রমিক ও তার পরিবার এবং প্রয়োজনে দুতাবাস ও কনস্যুলেট বাদি হয়ে যাতে সংশ্লিষ্ট নিয়োগকর্তা বা কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও ক্ষতিপূরণ আদায় করতে পারে তা নিশ্চিত করা, দেশে ফেরত আসা নারী শ্রমিকরাও যাতে বকেয়া মজুরিসহ তাদের উপর সংগঠিত অপরাধের বিচার পেতে পারে সে ব্যাপারে দ্বি-পাক্ষিক চুক্তিসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া; সৌদি আরবসহ প্রবাসে ধর্ষণ, নির্যাতন নিপীড়নের শিকার হয়ে যেসকল নারীরা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের প্রত্যেকের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা; গৃহকর্মীসহ অভিবাসী যেসব নারী দেশে ফিরে এসেছেন তাদের আর্থিক, সামাজিক ও পারিবারিক অধিকার ও মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে। ফেরত আসা নির্যাতিত নারীদের পুনর্বাসন ও কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা; সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে নারী গৃহকর্মীসহ অভিবাসী শ্রমিকদের উপরোক্ত ন্যায্য ও যৌক্তিক আইনি সুরক্ষা ও নিরাপত্তা ন্যূনতম মাত্রায় নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত সৌদিআরবসহ এসকল দেশে নারী গৃহশ্রমিক পাঠানো বন্ধ রাখা; প্রবাসী গৃহকর্মী ও নারী শ্রমিকদের উপর সংঘটিত শারীরিক-মানসিক ও যৌন নিপীড়নের ঘটনা ও তথ্য জানার পরও দুতাবাস ও কনস্যুলেট যে চরম দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়ে এসেছে সে ব্যাপারে অনতিবিলম্বে তদন্ত কমিটি গঠন, দায়ী কর্মকর্তাদের উপযুক্ত শাস্তি প্রদান। এ সব দাবিতে ১৭ নভেম্বর সকাল ১১টায় প্রেসক্লাবে সমাবেশ ও মিছিল করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশের কর্মসূচিও সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করা হয়।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..