উদীচীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

সাংস্কৃতিক বোধ দিয়েই অপশক্তি রুখতে হবে:

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

উদীচীর ৫১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন [ ছবি: রতন দাস ]
একতা প্রতিবেদক : চলমান এই অস্থির সময়ে উদীচীই পারে মানুষের মধ্যে সাংস্কৃতিক বোধের বিকাশ ঘটাতে। এই সাংস্কৃতিক বোধ দিয়েই সকল অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে আমাদের। গত ২৯ অক্টোবর উদীচীর ৫১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। এদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে জাতীয় ও সংগঠন সঙ্গীত পরিবেশন এবং জাতীয় ও সংগঠনের পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় অনুষ্ঠান শুরু হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উদীচীর নেতাকর্মীসহ অনেকেই। এই উদ্বোধন অনুষ্ঠান পরিণত হয়েছিলো উদীচীর নবীন ও প্রবীণদের এক মহা মিলন মেলায়। এরপর শুরু হয় আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উদীচীর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সফিউদ্দীন আহমেদ। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপন। তিনি বলেন, চলমান এই অস্থির সময়ে উদীচীই পারে মানুষের মধ্যে সাংস্কৃতিক বোধের বিকাশ ঘটাতে। এই সাংস্কৃতিক বোধ দিয়েই সকল অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে আমাদের। সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম সিদ্দিকী রানা বলেন, হৃদয় দিয়েই উদীচী করতে হয়। উদীচী হলো আমাদের আদর্শিক গন্তব্য, আমাদের স্বপ্ন পথের আকাশ। যে যেখানেই থাকুক, সেখানে থেকেই উদীচীর সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে হবে। নিজেকে ও দেশকে আলোকিত করতে উদীচীর সঙ্গে থাকতে হবে। উদীচীর সাবেক সভাপতি কামাল লোহানী বলেন, উদীচীকে একুশে পদক দেয়া হয়েছে কিন্তু সাংস্কৃতিক খাতে বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে কম। নানা ধরনের টালবাহানা চলছে উদীচীর সাংস্কৃতিক কর্মীদের হত্যাকাণ্ডের বিচার নিয়ে। এখনও যশোর নেত্রকোনা বোমা হামলার কোনো বিচার হয়নি। উদীচীর সাবেক সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ ইদু বলেন, যে আদর্শ নিয়ে উদীচী যাত্রা শুরু করেছিলো, আমি আশা রাখি বর্তমান নেতৃত্ব সে ধারা অব্যাহত রাখবেন। সভাপতির বক্তব্যে সফিউদ্দীন আহমদ বলেন, সমাজ বদলে উদীচীর ভূমিকার কোনো বিকল্প নেই। আলোচনা অনুষ্ঠানের পর শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। গণসংগীত পরিবেশন করেন উদীচীর সহ-সভাপতি মাহমুদ সেলিম। আবৃত্তি পরিবেশন করেন অলক বসু ও উদীচীর সহ- সভাপতি বেলায়েত হোসেন। পরবর্তীতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন অংশুমান দত্ত। এরপর সঙ্গীত পরিবেশন করেন তুহিন কান্তি দাস। সব শেষে পরিবেশিত হয় গীতি নৃত্যালেখ্য ভালবাসা ও প্রশান্তির পৃথিবী। উদীচীর সহ-সাধারণ সম্পাদক সঙ্গীতা ইমাম পুরো অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। রাজশাহী : উদীচীর ৫১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে উদীচী রাজশাহী জেলা সংসদ গত ২৯ অক্টোবর রাজশাহী নগরীর ফুদকি পাড়া পদ্মাপাড়ের রবীন্দ্র-নজরুল মঞ্চে বিস্তারিত কর্মসূচির আয়োজন করেছিল। জাতীয় সঙ্গীত ও সংগঠন সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। আলোচনা সভায় কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি ও রাজশাহী জেলা সংসদের সভাপতি জুলফিকার আহমেদ গোলাপের সভাপতিত্বে ও জেলা সংসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক বিধান চন্দ্র সরকারের সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজনীতিক ও শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, মুক্তিযোদ্ধা কলামিস্ট প্রশান্ত কুমার সাহা, সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান খান আলম, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের মহানগর সভাপতি শাজাহান আলী বরজাহান, জেলা সিপিবি সভাপতি এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক রাগিব হাসান মুন্না প্রমুখ। এ সময় উদীচী রাজশাহী জেলা সংসদের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ রাজকুমার সরকার, ড. রাজীব ব্যাণার্জী, আফতাব হোসেন কাজল, ব্রজেন্দ্রনাথ প্রামাণিক, সাধারণ সম্পাদক অজিত কুমার মণ্ডল, কোষাধ্যক্ষ সন্তোষ কুমারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উদীচী জেলা সংসদের শিল্পীদের গণসংগীত ও উদীচী রাবি সংসদের বাপ্পি ঘোষ পরিচালিত নাটক ‘ক্ষ্যাপা পাগলার প্যাচাল’ মঞ্চস্থ হয়। প্রসঙ্গত, লড়াই-সংগ্রামের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলােদশ উদীচী শিল্পগোষ্ঠী ১৯৬৮ সালের ২৯ অক্টোবর প্রতিষ্ঠার পর থেকেই একটি সাম্যবাদী অসাম্প্রদািয়ক শোষণমুক্ত সমাজ গঠেনর লক্ষে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এরই মধ্যে নোয়াখালী : নোয়াখালী জেলা সংসদসহ জেলার বিভিন্ন শাখা ৫১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী স্ব-স্ব উদ্যোগে উদযাপন করে। গত ২৯ অক্টোবর বিকেল চার ঘটিকায় উদীচীর প্রত্যেক শাখার সদস্যবৃন্দ নানান অনুষ্ঠানমালার কর্মসূচি দিয়ে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর ৫১বছরের গৌরবময় ইতিহাস জনসম্মূখে তুলে ধরেন। শিল্পী সংগ্রামী সত্যেন সেনের হাতে গড়া সংগঠনটির আদর্শ- উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে আসার আহ্বান করা হয়। চলমান সময়ে দুর্নীতি-দুর্বৃত্তায়ন, সাম্প্রদায়িকীকরণ, অপসংস্কৃতিক ও ফ্যাবিবাদ ও পেশি শক্তির বিরুদ্ধে এবং কৃষক শ্রমিক, মেহনতি মানুষের মুক্তির মানষে উদীচীর সংগ্রামকে অব্যাহত রাখার শপথ করা হয়। উদীচী, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও নোয়াখালী জেলা সংসদের সভাপতি অ্যাভোকেট মোল্লা হাবিবুর রাসুল মামুন ও সাধারণ সম্পাদক অজয় কুমার আচার্য প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সফলভাবে উদযাপনের জন্য প্রত্যেক শাখাকে ধন্যবাদ জানান।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..