সবুরে পেঁয়াজ ফলে

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : এটা একটা ভাল ব্যাপার যে, সরকার যখনি জাতিকে যে কথা দিয়েছে তা অক্ষরে অক্ষরে, দাড়ি-কমা- সেমিকোলনসহ পালন করেছে। এই যে পেঁয়াজের দাম, মাঝখানে অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল। সরকার দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ায় ২৫-৩০ টাকা কেজির পেঁয়াজের দাম কমতে কমতে এখন দেড়শ টাকার এসে দাঁড়িয়েছে। পেঁয়াজের দাম যখন ২৫-৩০ টাকা কেজি ছিল তখন মানুষের যেন একেবারে নাভিশ্বাস উঠে গিয়েছিল। মানুষ তো বাজারেই যেতেই ভয় পেত। কিন্তু এখন বাণিজ্যমন্ত্রীর লাগাতার-ধারাবাহিক-নিরলস-ঘামঝরানো-নীবিড় পরিশ্রম, তত্ত্বাবধান, পর্যবেক্ষণ, আন্তরিকতা এবং ব্যবসায়ীদের সুকঠোর হুঁশিয়ারির কারণে পেঁয়াজের দাম কিছুটা মানুষের হাতের নাগালে এসে পড়েছে। প্রতিকেজির দাম এখন মাত্র দেড়শ টাকা। আর মানুষও পারে, বাজারে গিয়ে মণকে মণ পেঁয়াজ কিনে মহাউৎসাহে বাড়ি ফিরে যাচ্ছে। এ দেখে সরকারের একজন তো মন্তব্যই করে বসলেন, ‘আচ্ছা, পেঁয়াজ না খাইলে কী হয়?’ আহা! ধন্য ধন্য সরকার। জাতি অশেষ কৃতজ্ঞতায় এই বাণিজ্যমন্ত্রীকে স্মরণ করবে, কারণ তিনি মাসখানেক আগে যখন পেঁয়াজের বাজার লাগামহীনভাবে বাড়তে শুরু করে তখনি বলেছিলেন, আর কটা দিন সবুর করো...। আজ সেই কথা অক্ষরে অক্ষরে ফলেছে!! ছোটবেলায় আমরা পাঠ্যবইয়ে পড়েছি- খোকা ঘুমাল, পাড়া জুড়াল, বর্গী এল দেশে/বুলবুলিতে ধান খেয়েছে, খাজনা দিব কিসে?/ধান ফুরাল, পান ফুরাল, খাজনার উপায় কী?/আর কটা দিন সবুর করো, রসুন বুনেছি।’ সময় এখন পাল্টেছে। ফলে এখন সরকার রসুনের বদলে পেঁয়াজ বুনেছে। এই তো গত সপ্তাহেই বাণিজ্যমন্ত্রী ফের বলেছেন, ‘মিশর থেকে সপ্তাহখানেকের মধ্যে পেঁয়াজ আসলে কেজিপ্রতি ৭০ থেকে ৮০ টাকায় পেঁয়াজ পাওয়া যাবে। হোপফুলি মিশরের প্রোডাক্টটা বাজারে আসলে দাম পড়ে যাবে।’ প্রবাদে আছে, সবুরে নাকি মেওয়া ফলে। তবে, এবার এই সরকার সেই প্রবাদকেও উল্টে দেবে, সবুরে এবার পেঁয়াজ ফলবে!!

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..