আমাজন বন রক্ষার দাবিতে নিউইয়র্কে প্রতিবাদ সমাবেশ

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

আমাজন বৃষ্টি-অরণ্য (রেইন ফরেস্ট) জ্বলছে। প্রায় ২৬,০০০ স্থানে এই আগুন বিস্তৃত হয়েছে। ইতিপূর্বে আর কখনো এত বেশি সংখ্যক আগুন আমাজন অরণ্যে দেখা যায়নি। ব্রাজিলের বর্তমান সরকারের আমাজন অরণ্য-বিরোধী নীতিমালা যে এই আগুন বিস্তৃতিতে বড় ভূমিকা রেখেছে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আমাজন বন বহুলাংশে ব্রাজিলে অবস্থিত হলেও, এ বন গোটা পৃথিবীর সম্পদ। আমাজন বন এই ধরিত্রীর ফুসফুস। আমাজন যখন জ্বলছে তখন কোনো সচেতন ও পরিবেশ দরদী ব্যক্তি বিচলিত না হয়ে পারে না। পরিবেশ রক্ষা একটি বিশ্বব্যাপী সংগ্রাম। বাংলাদেশের সুন্দরবন রক্ষার সংগ্রামেও আমরা সারা বিশ্বের পরিবেশ দরদীদের সহমর্মীতা প্রত্যাশা করি। আমাজন অরণ্যে বিস্তৃত আগুণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে এই আগুন নির্বাপিত করা এবং ব্রাজিলের বর্তমান সরকারের আমাজন বন বিরোধী নীতিমালা পরিহারের দাবি জানানোর জন্য ৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় নিউ ইয়র্ক শহরের জ্যাকসন হাইটসের ‘ডাইভারসিটি প্লাজা’য় বাংলাদেশ পরিবেশ নেটওয়ার্ক (বেন)-এর নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সী, এবং কানেক্টিকাট রাজ্য শাখা আয়োজিত এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ বক্তারা উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। বেন এর গ্লোবাল কো-অর্ডিনেটর ড. নজরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে¡ ও মোঃ হারুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদী মানববন্ধন ও সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন প্রোগ্রেসিভ ফোরাম ইউএসএ’র সভাপতি খোরশেদুল ইসলাম, সিনিয়র সাংবাদিক নিনি ওয়াহেদ, উদীচী যুক্তরাষ্ট্র শাখার সিনিয়র সহসভাপতি সুব্রত বিশ্বাস, মুক্তিযোদ্ধা পরিষদ, যুক্তরাষ্ট্রের নেতা আবদুল বাতেন, উদীচী যুক্তরাষ্ট্র শাখার সহসভাপতি সোহরাব সরকার, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নেতা ফাহিম রেজা নূর, বিশিষ্ট লেখক খান শওকত, প্রোগ্রেসিভ ফোরাম নেতা জাকির হোসেন বাচ্চু, মহিলা পরিষদ, যুক্তরাষ্ট্র’র সাধারণ সম্পাদক সুলেখা পাল, পরিবেশ কর্মী লিলি মজুমদার, লিয়াকত আলী, হিরু চেীধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে প্রতিবাদী সংগীত পরিবেশন করেন বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী ও উদীচী যুক্তরাষ্ট্র শাখার সহসভাপতি সফি চৌধুরী হারুন। বিজ্ঞপ্তি

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..