সরকারিভাবে ধান কেনার কর্মসূচির নামে লুটপাট

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

কক্সবাজার সংবাদদাতা : সরকারিভাবে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার কর্মসূচির নামে লুটপাটে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। প্রতিটন ২৬ হাজার টাকার ধান কিনতে ৩ হাজার টাকা ঘুষ বাধ্যতামূলক। ৩ টন ধান দিলে ২ বস্তা ধান ফ্রি দিতে হচ্ছে। এসবের বাইরেও কোনো সাধারণ কৃষক ধান নিয়ে খাদ্যগুদামে এসে ন্যায্যমূল্যে ধান বিক্রি করতে পারছে না বলে জানান কৃষকরা। খাদ্যগুদাম এবং কৃষি অফিস কর্মকর্তাদের নির্দিষ্ট দালাল বা সিন্ডিকেটের মাধ্যম ছাড়া ১ কেজি ধানও কিনছে না সরকারি কর্মকর্তারা। সদর খাদ্যগুদামে গিয়ে দেখা গেছে, কয়েকটি বড় বড় ট্রাকে করে ধান এনে রাতেও গুদামে ঢুকানো হচ্ছে। কয়েকজনের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, এখানে কোনো কৃষকের ধান নেই। সব ব্যবসায়ীদের ধান। খাদ্যগুদামের কর্মকর্তা ছালাউদ্দিনের সঙ্গে চুক্তি করে ধান দিচ্ছে ব্যবসায়ীরা। মূলত কৃষকের কার্ড ব্যবহার করা হলেও সব ধান ব্যবসায়ীদের। এখানে কোন সাধারণ কৃষক ধান দিতে পারে না। কর্মকর্তাদের লালিত সিন্ডিকেট সদস্যরা ধান দিচ্ছে। যদি কোন সাধারণ কৃষক আসে তার ধানে আর্দ্রতা বেশি বা ভিজা ও চিটা আছে বলে তাকে ফেরত দেয়া হয়। আর প্রতিকেজি ২৬ টাকা দরে প্রতি টন ধান ২৬ হাজার টাকায় ৩ হাজার টাকা অফিসে ঘুষ দিতে হয়। পিএমখালী গোলাপাড়ার অছিয়র রহমান নামে এক ব্যক্তি ধান গুদামে ভরছে কিন্তু তাৎক্ষণিক তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমার কোনো জমি নেই মূলত এক ব্যবসায়ী আমাকে নিয়ে এসেছে তার ধান বিক্রি করার জন্য। আমাকে স্বাক্ষর দিতে হবে তাই এখানে এসেছি।’ পরে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে সবাই সরে গেছে। জানা গেছে, সরকারি ধান বিক্রিতে সিন্ডিকেট হিসেবে কাজ করে বিপুল টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে খুরুশকুলের সাগর এন্টাপ্রাইজের মালিক সাগর, পিএমখালী সুইস গেট এলাকার ব্যবসায়ী আলতাজ সওদাগর, শহরের রুমালিয়ারছড়ার দোকান আছে ভারুয়াখালীর বাসিন্দা নুরুল হুদা, তার সহযোগী রিপন। উপজেলা সংলগ্ন ডিকুকল এলাকার ইলিয়াছ ও জুয়েল ইতেমধ্যে ১৬ টন ধান দিয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। এছাড়া লিংক রোড এলাকার আকতার সওদাগর, বাংলাবাজার বাহার রাইস মিলের ছালামত উল্লাহ, উর্মি রাইস মিলের ছুরুত আলম, উত্তর ডিককুল এলাকার বাসিন্দা পৌরসভার স্টোর কিপার নুরুল কবির, খরুলিয়ার মমতাজ সওদাগর, পিএমখালীর সাইফুল, আজিমসহ অনেকে বর্তমানে ধান বিক্রি সিন্ডিকেট হিসেবে কাজ করছে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..