ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট সমাজতন্ত্রী স্যাসোলিসট

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

একতা বিদেশ ডেস্ক : ইতালির সমাজতান্ত্রিক এমইপি ডেভিড স্যাসোলিসট ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। ডেমেক্র্যাটিক পার্টির এমইপি স্যাসোলি বিদায়ী রক্ষণশীল প্রেসিডেন্ট অ্যান্তোনিও তাজানির স্থলাভিষিক্ত হবেন। খবর ইন্ডিপেন্ডেন্টের এর আগে ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রথমবারের মতো দুটি গুরুত্বপূর্ণ পদে দুই নারীর নাম প্রকাশের পর ৩ জুলাই এই সমাজতন্ত্রীকে শীর্ষপদে মনোনীত করা হয়েছে। দ্বিতীয় দফার ভোটে এই সাবেক সাংবাদিক ও মধ্যবামপন্থী প্রার্থী ৩৪৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডানপন্থী জান জাহরাডিল ১৬০ ও গ্রিন স্কা কেলার ১১৯ ভোট পেয়েছেন। নিরঙ্কুশ ভোটে একজন সমাজতন্ত্রীকে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট হিসেবে সুপারিশ করলেন ইউরোপীয় কাউন্সিলের নেতারা। আগামী আড়াই বছর তিনি এই পদে দায়িত্ব পালন করবেন। ইতালি থেকে নির্বাচিত সপ্তম ইউরোপীয় প্রেসিডেন্ট হলেন এই সাবেক সাংবাদিক। নিজের প্রথম বক্তব্যে স্যাসোলিসট বলেন, আমরা এমন এক সময়ে পার্লামেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করছি, যখন বিভিন্ন ঘটনা আমাদের ওপর অনেক বেশি দায়িত্বের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে। ১৯৫৬ সালের ৩০ মে ফ্লোরেন্সে জন্ম গ্রহণ করেন তিনি। দুই সন্তানের বাবা স্যাসোলি রাষ্ট্রবিজ্ঞানে পড়াশোনা শেষ করে একটি দৈনিক পত্রিকা ও সংবাদ সংস্থায় সাংবাদিক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৯২ সালে আরএআইতে ব্রোডকাস্টার হিসেবে কাজ করেন। সাংবাদিক হিসেবে ইতালিতে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। ২০০৯ সালে স্যাসোলি ডেমোক্রেটিক পার্টিতে যোগ দেয়ার মাধ্যমে তার রাজনৈতিক জীবন শুরু হয়েছে। এদিকে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ইতিহাসে এই প্রথম একজন নারী ইউরোপীয় কমিশনের নতুন প্রেসিডেন্ট মনোনীত হয়েছেন। নতুন প্রেসিডেন্ট হয়েছেন জার্মানির প্রতিরক্ষামন্ত্রী উরসুলা ভন ডার লেন। এক সপ্তাহ ধরে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সর্বোচ্চ পদ ইউরোপীয় কমিশনের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে জার্মানি ও ফ্রান্সের মধ্যে দর-কষাকষি চলছিল। পরে প্রস্তাবিত প্রার্থীদের বাদ দিয়ে নতুন প্রার্থী হিসেবে উরসুলা ভন ডার লেন মনোনীত হয়েছেন। ইউরোপীয় কমিশনের দুই মেয়াদের প্রেসিডেন্ট জ্যঁ ক্লদে ইউঙ্কার অবসরে যাওয়ার কারণেই নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল। ২ জুলাই রাতে ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানদের সভায় ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট পদসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। জার্মানির ক্ষমতাসীন কোয়ালিশন সরকারের বর্তমান প্রতিরক্ষামন্ত্রী উরসুলা ভন ডার লেন চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের কাছের মানুষ বলে পরিচিত। ৬০ বছর বয়সী এই রাজনীতিক ২০১০ সাল থেকে ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাট দলের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে তিনি নিদারসাক্সেন রাজ্যের পরিবারবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। পেশায় চিকিৎসক এবং সাত সন্তানের মা উরসুলা ভন ডার লেন চিকিৎসাবিদ্যায় অভিসন্দর্ভ করাসহ লন্ডন স্কুল অব ইকনোমিকসে রাজনীতি ও অর্থনীতি বিষয়ে পড়াশোনা করেছেন। ইউরোপীয় কমিশনের নতুন প্রেসিডেন্ট মনোনয়নের পাশাপাশি ইউরোপীয় কাউন্সিলের সভাপতি মনোনীত হয়েছেন বেলজিয়ামের উদারপন্থি অন্তর্র্বতী প্রধানমন্ত্রী চার্লস মিশেল, তিনি বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্কের স্থলাভিষিক্ত হবেন। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান ফ্রান্সের ক্রিস্টেন ল্যাগার্ডকে ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের (ইসিবি) প্রথম নারী প্রধান হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে। এবং পররাষ্ট্র, নিরাপত্তা, প্রতিরক্ষাবিষয়ক কমিশনার পদে মনোনীত হয়েছেন স্পেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ বোরেলে। ইউরোপীয় ইউনিয়নে তিনটি প্রধান প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এগুলো হলো ইউরোপীয় পার্লামেন্ট, ইউরোপীয় কমিশন ও ইউরোপীয় কাউন্সিল। ইউরোপীয় পার্লামেন্ট বা পার্লামেন্টের সদস্যরা মূলত জোটভুক্ত দেশগুলোর জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে। ইউরোপীয় পার্লামেন্ট জোটের বিভিন্ন বিষয়ে আইনপ্রণেতা হিসেবে কাজ করে। জোটের বাজেটের ক্ষেত্রেও ইইউ পার্লামেন্টে সম্মতির প্রয়োজন হয়। ইউরোপীয় কমিশন জোটের প্রশাসনিক বিষয় এবং ইউরোপীয় কাউন্সিল সদস্য রাষ্ট্রের সরকারগুলোর প্রতিনিধি সংবলিত কমিটি।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..