নেত্রকোনায় বাঁধ ভেঙে পানি ঢুকছে ৩ হাওরে

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
নেত্রকোনা সংবাদদাতা : শেষ রক্ষা হলো না নেত্রকোনার বারহাট্টার ফসল রক্ষা বাঁধের। এ উপজেলার চিরাম ইউনিয়নের পুটকিয়া নামক স্থানে সিঙ্গার বিল সাবমাসির্জবল প্রজেক্টের প্রায় ৬০ ফুট বাঁধ ভেঙে গেছে। এতে তিনটি হাওড়ের কয়েক হাজার হেক্টর বোরো জমিতে পানি ঢুকে পড়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বারহাট্টার চিরাম ও আসমা ইউনিয়নে প্রায় ২০ কিলোমিটার ফসল রক্ষা বাঁধ রয়েছে। ওই বাঁধের প্রায় সাত কিলোমিটার সাবমার্সিবল, যা বর্ষায় পানিতে ডুবে যায়। সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও বৃষ্টিতে কংশ নদীর শাখা গুমাই নদীতে পানি বেড়ে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত শুরু করে। পানির চাপে পুটকিয়া নামক স্থানে বাঁধের কয়েক জায়গায় ফাটল দেখা দেয়। গতকাল ভোরে ওই স্থানে বাঁধটি ভেঙে যায়। এতে তিনটি হাওড়ে পানি ঢুকে রামারবাড়ী, পুটকিয়া, হরিরামপুর, নয়হাটী, বাহিরকান্দা, গাবরকান্দা, উজানগাঁও, চিরামসহ উপজেলার দুটি ইউনিয়নের ২০টি গ্রামের প্রায় ১০ হাজার হেক্টর বোরো ফসলের জমি প্লাবিত হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম, বারহাট্টা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাঈনুল হক কাসেম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদা ইয়াসমিন, নেত্রকোনা পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান বাঁধ এলাকায় ছুটে যান। নেত্রকোনা পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান বলেন, শুষ্ক মৌসুমে জমিতে সেচ দেয়ার জন্য ওই স্থানে বিএডিসি পাম্প বসিয়েছিল। তারা ঠিকমতো কাজ না করায় বাঁধের নিচ দিয়ে পানি প্রবেশ করে কিছু অংশ ভেঙে গেছে। এতে প্রায় তিন হাজার হেক্টর বোরো ধানের জমিতে পানি প্রবেশ করেছে। বাঁধটি মেরামতের জন্য উপজেলা প্রশাসন ও এলাকাবাসীকে নিয়ে আমাদের লোকজন কাজ করছে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..