‘গ্যাসের মূল্য কমানোর গণশুনানি করতে হবে’

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

একতা প্রতিবেদক : সরকার গণশুনানির নামে অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন। গত ৯ মার্চ সংগঠনটির ঢাকা মহানগর আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, গ্যাসের মূল্য বাড়ানোর জন্য নয় কমানোর জন্য গণশুনানি করতে হবে। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তারা বলেন, গ্যাসের মূল্য কমিয়ে অনতিবিলম্বে আবাসিক এলাকায় পর্যাপ্ত গ্যাস সরবরাহ করতে হবে, তা-নাহলে এ আন্দোলন পাড়া-মহল্লায় ছড়িয়ে পড়বে। গ্যাসের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে মূলত সিলিন্ডার ব্যবসায়ীদের খুশি করতে এবং তাদের অধিক মুনাফার সুযোগ দিতেই সরকার মূল্যবৃদ্ধির পাঁয়তারা করেছে। যুব ইউনিয়ন ঢাকা মহানগর কমিটির সভাপতি যুবনেতা হাবীব ইমনের সভাপতিত্বে এ সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শিশির চক্রবর্তী, তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য খান আসাদুজ্জামান মাসুম, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন ঢাকা মহানগরের সহ-সভাপতি চৌধুরী জোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক নূরে আলম শাহীন। সমাবেশ সঞ্চালনা করেন সংগঠনের ঢাকা মহানগরের সহ-সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আজিম। বক্তারা বলেন, এ সরকার ক্ষমতায় আসার পর গ্যাস, বিদ্যুৎ, গাড়ি ভাড়া, খাজনাসহ প্রতিটি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দফায় দফায় মূল্যবৃদ্ধি করেছে। কয়েকদফা গ্যাসের দাম বাড়ালেও আবাসিক এলাকাতে গ্যাসের সংকট দিন দিন তীব্রতর হচ্ছে। যুব ইউনিয়ন এ মূল্যবৃদ্ধির ষড়যন্ত্রকে জনগণের দুর্ভোগ বাড়িয়ে কিছু অসাধু মুনাফাখোর ও লুটেরা আইএমএফ-বিশ্ব ব্যাংক এবং তাদেও দেশি-বিদেশি এজেন্টদের খুশি করার প্রজেক্ট হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। ‘এর ফলে জনগণের ভোগান্তি বাড়বে। সব জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাবে। বাড়িভাড়া ও গাড়িভাড়া বেড়ে গিয়ে সাধারণ খেটে-খাওয়া মানুষের ভোগান্তি অন্তহীন হয়ে পড়বে,’ সমাবেশে বলেছেন যুবনেতারা। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..