খুলনায় বাম জোটের গোলটেবিল বৈঠক

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
বাম গণতান্ত্রিক জোট, খুলনা জেলার উদ্যোগে ‘খুলনার হকার ও ইজিবাইক উচ্ছেদ, ফুটপাত দখলমুক্তকরণ ঃ স্থায়ী সমাধানে করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক গত ২৬ জানুয়ারি শনিবার বেলা ১১:৩০টায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) খুলনা জেলা ও মহানগর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। বাম গণতান্ত্রিক জোট, খুলনার আহ্বায়ক ও সিপিবি’র খুলনা জেলা সভাপতি ডা. মনোজ দাশের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গোলটেবিল বৈঠকে ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন সিপিবি’র মহানগর সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মো. বাবুল হাওলাদার। ধারণাপত্রের উপস্থাপক তার ধারণাপত্রে বলেন, পথচারীদের চলাচল নির্বিঘ্ন করা, দুর্ঘটনা এড়ানো, পরিবেশ রক্ষা, শহরের শ্রীবৃদ্ধি ইত্যাদি কারণে ফুটপাত দখলমুক্ত ও হকার উচ্ছেদ অনেকের দাবি কিন্তু যুগ যুগ ধরে ফুটপাতে চা-পান-সিগারেট, ছোটখাটো মুদি দোকান, শহরের প্রাণকেন্দ্রে হকাররা অস্থায়ী দোকান বসিয়ে ব্যবসা করে আসছে। তাদের এই ক্ষুদ্র ব্যবসার স্বল্প আয়ের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে তাদের পুরো পরিবার–সন্তানদের লেখাপড়া, পরিবারের বয়ঃবৃদ্ধদের চিকিৎসা ইত্যাদি। সুদীর্ঘ সময় ধরে প্রশাসনের নাকের ডগায় ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের সুবিধাবাদী নেতাকর্মীদের অবৈধ আয়, চাঁদাবাজি, প্রশাসনের আর্থিক সুবিধা গ্রহণ প্রভৃতি রকমের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে এ মানুষগুলো এ পেশার উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। একদিকে তাদেরকে সুবিধা নিয়ে বসতে দেয়া হয়, আবার মাঝে মাঝেই তুলে দেয়া হয়। প্রশাসনের এহেন দ্বিচারী ভূমিকার কারণে স্বল্প আয়ের মানুষগুলোর জীবন চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে যায়। অন্যদিকে শিক্ষিত, আধা-শিক্ষিত এমনিকি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা ইজিবাইক চালিয়ে পড়াশুনার খরচ, পরিবারের ব্যয়ভার বহন ও জীবিকা নির্বাহ করেন। ফলে একদিকে ব্যাপক জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে অন্যদিকে সমাজে অপরাধ প্রবণতাও কমেছে উল্লেখযোগ্য হারে। আবার স্বল্প আয়ের যাত্রী সাধারণও অল্প ভাড়ায় অনেক পথ যাতায়াত করতে পারেন। বিষয়গুলোর সাথে সমাজের মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত ও স্বল্প আয়ের ৯০ ভাগ মানুষ। ফলশ্রুতিতে এ ব্যাপক সংখ্যক মানুষ দ্বারা সমাজে বিশৃঙ্খলা চরমভাবে বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকির আশঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না। অন্যদিকে হকারদের নিকট থেকে স্বল্প আয়ের মানুষ অল্পদামে কাপড়-চোপড় কিনে ব্যবহার করে। অফিস-আদালতসহ বিভিন্ন স্থাপনার সামনে ছোট ছোট দোকান স্বল্প আয়ের মানুষদের খাবারের চাহিদা মিটিয়ে থাকে। এটি সেবামূলক কাজও বটে। সঙ্গতকারণে উপরোল্লিখিত বিষয়ে একটি যৌক্তিক, স্থায়ী সমাধানের আহ্বান জানান। সাথে সাথে উচ্ছেদকৃত হকারদের অতিসত্ত্বর পুনর্বাসনের আহ্বান জানান। মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন, সিপিবি’র কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, খুলনা নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আ ফ ম মহসীন, খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, নিরাপদ সড়ক চাই–নিসচার কেন্দ্রীয় সদস্য এস এম ইকবাল হোসেন বিপ্লব, দৈনিক পূর্বাঞ্চলের স্টাফ রিপোর্টার এইচ এম আলাউদ্দিন, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব আফজাল হোসেন রাজু, বাসদ (মার্কসবাদী) নেতা রুহুল আমিন, বাসদ নেতা সনজিৎ মণ্ডল, সিপিবি নেতা নিতাই পাল, সাংবাদিক শেখ আব্দুল হামিদ, খায়রুল আলম, মো. জাকারিয়া হোসেন তুষার, মো. ইমাম হোসেন, মো. হেলাল মোল্যা, নিসচা’র জেলা সহ-সভাপতি মো. সেলিম খান, অর্থ সম্পাদক কামরুল কাজল, হকারদের মধ্যে শেখ তরিকুল ইসলাম, মো. মাসুম, মো. সুমন, মো. আবির হোসেন, ইজিবাইক চালকদের মধ্যে মোঃ শাহিন খান, যুব ইউনিয়ন নেতা জামসিদ হাসান জিকু, জয়ন্ত মুখার্জী, ছাত্র ইউনিয়ন নেতা প্রীতম সরদার, সৌমিত্র সমাদ্দার, কৃষ্ণেন্দু বাছাড়, ছাত্র ফ্রন্টনেতা বাদল সরদার প্রমুখ।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..