ভোটের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলেন মাদুরো

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা বিদেশ ডেস্ক : নতুন করে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রস্তাব সরাসরি উড়িয়ে দিলেন ভেনেজুয়েলায় রাষ্ট্রপতি নিকোলাস মাদুরো। অদূর ভবিষ্যতে দেশে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা নেই, রুশ আরটি টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি সরাসরি বলেছেন। ৪ ডিসেম¦র ভেনেজুয়েলার অন্তর্র্বর্তী রাষ্ট্রপতি হিসাবে হুয়ান গুইদোকে স্বীকৃতি দিয়েছে ব্রিটেন, স্পেন, ফ্রান্স, জার্মানি, সুইডেনসহ ইউরোপের দেশগুলি। ক’দিন আগেই নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি নিকোলাস মাদুরোর উদ্দেশে তাঁরা চরমপত্র শুনিয়েছিলেন। ‘আট-দিনের মধ্যে হয় নতুন করে নির্বাচন করতে হবে, নতুবা তারা বিরোধী নেতার দাবিকে সরকারিভাবে স্বীকৃতি দেবে।’ ৬ ডিসেম¦র ছিল তার শেষদিন। মাদুরো সেই চরমপত্র উড়িয়ে দেওয়ার পরে ইউরোপের দেশগুলি গুইদোকে অন্তর্র্বর্তী রাষ্ট্রপতি হিসাবে গুইদোকে স্বীকৃতি দেয়। কারাকাসে সম্প্রতি এক বিক্ষোভ সভা থেকে গুইদো নিজেই নিজেকে ভেনেজুয়েলার অন্তর্র্বর্তী রাষ্ট্রপতি হিসাবে ঘোষণা করেন। বিবিসি’র বয়ানে ‘মিনিটকয়েকের’ মধ্যেই মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁকে অন্তর্র্বর্তী রাষ্ট্রপতি হিসাবে স্বীকৃতি দেন। একইসঙ্গে, গুইদোকে সমর্থনের জন্য অন্যান্য দেশের কাছে আরজি জানান। ট্রাম্পের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ব্রাজিল, কলম্বিয়া, চিলি, পেরু, ইকুয়েদর, আর্জেন্টিনা এবং প্যারাগুয়ে- লাতিন আমেরিকার সাতটি দক্ষিণপন্থি সরকার ইতিমধ্যেই গুইদোকে অন্তর্র্বর্তী রাষ্ট্রপতি হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে। আরটি টেলিভিশনকে মাদুরো জানিয়ে দিয়েছেন, ভেনেজুয়েলায় নির্বাচনের কোনো ঘাটতি নেই। একাধিক নির্বাচন হয়। যেমন নতুন করে সংসদীয় নির্বাচন হওয়ার কথা ২০২০-তে। ‘সমস্যা হলো বিরোধীদের নিয়ে। নিয়ম মেনে নির্বাচন নিয়ে নয়। আমরা গত ২০ বছরে ২৫টি নির্বাচন করেছি। ২০১৮-তে নির্বাচনসূচি ঠিক করা হয়েছিল বিরোধীদের অনুরোধ মেনে।’

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..