বরিশালে পানি সঙ্কট

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
বরিশাল সংবাদদাতা : চলতি বোরো মৌসুমে কৃষক আগাম আবাদে নামলেও সড়ক ও জনপথ বিভাগের রাস্তা ও ব্রিজ উন্নয়ন কাজের জন্য প্রধান খালের মুখে দুটি বাঁধ দেয়ায় পানি সঙ্কটে দুই সহ¯্রাধিক কৃষক ধানের চারা রোপণ করতে পারছেন না। জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ও গৈলা খালের মুখে দুটি বাঁধ নির্মাণ করায় উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ব্যাহত হবার পাশাপাশি চরম ক্ষতির মুখে পড়েছেন কৃষকরা। রাজিহার গ্রামের চাষি কমলেশ হালদারসহ অর্ধশতাধিক চাষি জানান, বরিশাল সড়ক বিভাগের আওতায় উপজেলা সদর থেকে ঘোষেরহাট পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন ও থানার সামনে ব্রিজ নির্মাণ কাজের জন্য উপজেলা সদর এলাকায় রাজিহার ও গৈলা খালের মুখে দুটি বাঁধ নির্মাণ করা হয়েছে। ফলে বর্তমানে চাষিরা ইরি ব্লকে সেচ দিতে না পারায় আগাম বোরো ধানের চারা রোপণ করতে পারছেন না। প্রধান খালে বাঁধ দেয়ায় ওই খালসহ শাখা খালগুলো শুকিয়ে যাওয়ায় ইরি ব্লকের মেশিনগুলো পর্যায়ক্রমে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। চাষিরা আরও বলেন, উন্নয়ন কাজের জন্য চাষিদের কথা বিবেচনা করে খালে পানি চলাচলের ব্যবস্থা রাখার দরকার ছিল কিন্তু ঠিকাদার খামখেয়ালি করে বাঁধ দিয়ে পানি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। বাঁধ অপসারণ বা পানি চলাচলের জন্য চাষিরা স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন বলেন, বাঁধের কারণে পানি সঙ্কটের জন্য চাষিদের চাষাবাদ সমস্যার কথা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করা হয়েছে। পানির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত চাষি ও ব্লকের তালিকাও তাকে দেয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দাস জানান, বাঁধের কারণে ৩০/৩৫টি ব্লক ক্ষতিগ্রস্তের তালিকার পাশাপাশি অনেক ছোট ব্লক ক্ষতি হবে। বিষয়টি তার দফতরের না হওয়ার পরও চাষিদের কথা চিন্তা করে তিনি বিষয়টি বরিশাল সওজ কর্তৃপক্ষ, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার, জেলা প্রশাসক ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের সহযোগীতার সমন্বয় করে সমাধানের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..