এই সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট ডাকাতির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মুখে কালো কাপড় বেঁধে বাম গণতান্ত্রিক জোটের অবস্থান কর্মসূচি
একতা প্রতিবেদক : গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রশাসনের সহায়তায় যে ন্যাক্কারজনক কারচুপি অনুষ্ঠিত হয়েছে, তা বাতিল করে ফের নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। এই উপলক্ষে গত ৩ ডিসেম্বর রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে মুখে কালো কাপড় বেঁধে কর্মসূচি পালন করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। একতার প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:- খুলনা: কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মুখে কালো কাপড় বেঁধে খুলনায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গত তিন ডিসেম্বর বাম গণতান্ত্রিক জোট খুলনা শাখার উদ্যোগে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। নগরীর পিকচার প্যালেস মোড়ে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জোটের খুলনা জেলা সমন্বয়ক ও সিপিবি খুলনা জেলা সভাপতি ডা. মনোজ দাশ। সঞ্চালনা করেন ইউসিএলবি খুলনা জেলা সদস্য মোস্তফা খালিদ খসরু। মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাম গণতান্ত্রিক জোট সমর্থিত খুলনা-১ আসনের প্রার্থী ও সিপিবি বটিয়াঘাটা উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অশোক সরকার, খুলনা-২ আসনের প্রার্থী ও সিপিবি খুলনা মহানগর কমিটির সভাপতি এইচ এম শাহাদৎ, খুলনা-৩ আসনের প্রার্থী ও বাসদ খুলনা জেলা কমিটির সমন্বয়ক জনার্দন দত্ত নান্টু, খুলনা-৫ আসনের প্রার্থী ও সিপিবি ডুমুরিয়া উপজেলার কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট চিত্তরঞ্জন গোলদার, সিপিবি কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, খুলনা জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল আমিন, ইউসিএলবি খুলনা জেলা সদস্য কে এম দেলোয়ার হোসেন, বাসদ খুলনা জেলা সদস্য কোহিনুর আক্তার কণা, অজয় মজুমদার, বাসদ (মার্কসবাদী) খুলনা জেলা সদস্য রুহুল আমিন, টিইউসি খুলনা জেলা সাধারণ সম্পাদক রহমান মোল্যা, খুলনা নগর সভাপতি রুস্তম আলী হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক রঙ্গলাল মৃধা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট খুলনা জেলা সভাপতি

রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে বাম গণতান্ত্রিক জোটের মানববন্ধন ও সমাবেশ
সনজিত মণ্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুপ্রভাত কবিরাজ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন খুলনা নগর সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সৌরভ সমাদ্দার প্রমুখ। সভাপতির বক্তব্যে ডা. মনোজ দাশ বলেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশন গত ৩০ ডিসেম্বর এক ন্যাক্কারজনক নির্বাচনের ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। এই নির্বাচন বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে আরও অন্ধকার গহ্বরে ঠেলে দিয়েছে। এমতাবস্থায় বাম গণতান্ত্রিক জোটের দাবি অনুযায়ী প্রহসনের নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করে অবাধ-নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নিরপেক্ষ তদারকি সরকার গঠন, অর্থ-পেশি-শক্তি-প্রশাসনিক কারসাজি-সাম্প্রদায়িকতার ব্যবহার নিষিদ্ধ ও ‘সংখ্যানুপাতিক প্রতিনিধিত্ব ব্যবস্থা’ প্রণয়নের মাধ্যমে পুনরায় নির্বাচন দিয়ে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ফিরিয়ে আনতে হবে। নতুবা জনগণকে সংঘবদ্ধ করে গণ-আন্দোলনের মাধ্যমে এই ফ্যাসিবাদী সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করতে হবে। গাইবান্ধা: ভোট ডাকাতির নির্বাচন বাতিল করে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে অবিলম্বে নির্বাচনের দাবিতে গাইবান্ধায় কালো কাপড় মুখে বেঁধে বিক্ষোভ করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। গত তিন ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এই কর্মসূচি পালিত হয়। অবস্থান কর্মসূচির আগে একটি মিছিল জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে শহীদ মিনারে অবস্থান করে প্রতিবাদ জানানো হয়। কর্মসূচি শেষে বাম গণতান্ত্রিক জোটের মনোনীত গাইবান্ধা-২ আসনের কাস্তে প্রতীকের প্রার্থী মিহির ঘোষ সাংবাদিকদের জানান, নজিরবিহীন ভোট ডাকাতির এই নির্বাচনে আমরা স্তম্ভিত। আমরা নির্বাচনের আগেই তদারকি সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন করার দাবি জানিয়েছিলাম। আমাদের দাবি যে কতটা যৌক্তিক ছিল ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে তা প্রমাণিত হয়েছে। বাম জোটের এই নেতা মনে

পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে মুখে কালো কাপড় বেঁধে বাম গণতান্ত্রিক জোটের অবস্থান
করেন, সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচন সম্ভব নয়। অবিলন্বে এই নির্বাচন বাতিল করে তদারকি সরকার গঠন করার দাবি জানান তিনি। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বাসদের সমন্বয়ক গোলাম রব্বানী, বাসদ মার্কসবাদী নেতা মঞ্জুরুল আলম মিঠু, জেলা সিপিবির সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল। রংপুর: কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রংপুরে মুখে কালো কাপড় বেঁধে বাম গণতান্ত্রিক জোটের মানববন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৩ জানুয়ারি রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এতে জোটের জেলা সমন্বয়ক ও বাসদ নেতা আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা সমন্বয়ক আনোয়ার হোসেন বাবলু, বাসদ জেলা সদস্য সচিব মমিনুল ইসলাম ও সিপিবি জেলা নেতা রাতুজ্জামান রাতুল। মানববন্ধন সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, ভোট ডাকাতির যে নির্বাচন হয়েছে তা অবিলম্বে বাতিল করতে হবে। ফের তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। পুলিশি বাধার কারণে কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত হওয়ায় নেতৃবৃন্দ তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সেইসঙ্গে নোয়াখালীর সূবর্ণচরে আওয়ামী নেতা কর্তৃক ধর্ষণের ঘটনায় সকল আসামির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। পটুয়াখালী: একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ভোটাধিকার হরণ এবং ভোটের ফলাফল বাতিলের দাবিতে গত ৩ জানুয়ারি পটুয়াখালীর জেলার স্থানীয় প্রেসক্লাবে বাম গণতান্ত্রিক জোটের উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাম গণতান্ত্রিক জোট মনোনীত কাস্তে মার্কায় পটুয়াখালী ১ আসনের প্রার্থী মোতালেব মোল্লা, পটুয়াখালী ২ আসনের প্রার্থী শাহাবুদ্দিন আহাম্মেদ, পটুয়াখালী-৪ আসনের প্রার্থী অ্যাড. জহিরুল আলম সবুজ। এছাড়াও বাম গণতান্ত্রিক জোটের জেলা বা উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..