টিলারসনকে সরাতে হোয়াইট হাউজের চিন্তা

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা বিদেশ ডেস্ক : মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনকে সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে হোয়াইট হাউজ। তবে খোদ হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বিষয়টি অস্বীকার করা হচ্ছে। আর আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) প্রধান মাইক পম্পিও’কে টিলারসনের স্থলাভিষিক্ত করারও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে বর্তমানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী টিলারসনের সম্পর্ক ভাল যাচ্ছে না। টিলারসন ব্যক্তিতভাবে প্রেসিডেন্টকে ‘নির্বোধ’ আখ্যা দিয়েছেন বলেও খবর এসেছে। বিভিন্ন বিষয়ের মধ্যে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা এবং ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে ট্রাম্পের সঙ্গে টিলারসনের মতভেদও আছে। ট্রাম্পের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ার কারণে কয়েকমাস ধরেই টিলারসনকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে বলে গুঞ্জন শোনা গেছে। তার জায়গায় জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালিকে নিয়োগ দেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছিল। এই ভিত্তিতেই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা টিলারসন অপসারণের খবর যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমকে জানান। পরিকল্পনাটি নিয়ে আলোচনা চলছে বলেও জানিয়েছেন হোয়াইট হাউজের দুই কর্মকর্তা। তার জানান, সিআইএ প্রধান মাইক পম্পিও জাতীয় নিরাপত্তার প্রশ্নে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আস্থা অর্জন করায় এখন তিনিই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদে আসীন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু সব নাকচ করে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকেও ওই খবর ‘সত্য নয়’ বলে বিবৃতি দেওয়া হয়। সবশেষ গত ৩০ নভেম্বর হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্স বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ এই কূটনীতিকই (মাইক পম্পিও) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্ব দিয়ে যাবেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..