লেখক অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয় আটজন

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয় মোট আটজন। এর মধ্যে চারজন সরাসরি অভিজিৎকে খুন করে। অন্যরা তদারকি বা পাহারায় ছিল। গত ৫ নভেম্বর রাতে পুলিশ আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব সোহেল নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ দাবি করেছে, তিনি অভিজিৎ হত্যায় জড়িত থাকার স্বীকার করেছেন। পরদিন তিনি ঢাকার মহানগর হাকিম আহসান হাবীবের আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গণমাধ্যম শাখার উপকমিশনার মাসুদুর রহমান জানিয়েছেন, ৫ নভেম্বর রাত ৮টার দিকে মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোডে অভিযান চালান কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের বিশেষ দলের সদস্যরা। সিদ্দিককে হত্যাকাণ্ডের দিন বাংলা একাডেমির মেলা চত্বরের সিসিটিভি ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে শনাক্ত করা হয়েছে। সোহেল আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ইন্টেলিজেন্স শাখার সক্রিয় সদস্য। পুুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সোহেল বলেছে, তাদের সংগঠনের বড় ভাই জিয়ার (মেজর জিয়া) নির্দেশে তিনি ওই হত্যাকান্ডে অংশ নেন। অভিজিৎ হত্যাকান্ডের পর সিসিটিভি ভিডিও পর্যালোচনা করে যাদের চিহ্নিত করা হয়েছিল, তাদের মধ্যে সোহেলও ছিল। পুলিশ বলছে, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম নাম বদলে আনসার আল-ইসলাম বাংলাদেশ হিসেবে বাংলাদেশে বিভিন্ন জঙ্গি হামলা ও হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। আর ২০১২ সালের ১৯ জানুয়ারি সেনাবাহিনীতে ব্যর্থ অভ’্যত্থানচেষ্টার পরিকল্পনাকারী মেজর জিয়া আনসার আল ইসলামের সঙ্গে আছেন। ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতে একুশে বইমেলা চলাকালে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ থেকে বের হওয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির কাছে ফুটপাতে কুপিয়ে হত্যা করা হয় অভিজিৎ রায়কে। ওই সময় তাঁর সঙ্গে থাকা স্ত্রী বন্যা আহমেদও হামলার শিকার হয়ে একটি আঙুল হারান। এ ঘটনায় অভিজিতের বাবা অধ্যাপক অজয় রায় বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করেন। অভিজিৎ থাকতেন যুক্তরাষ্ট্রে। লেখালেখির কারণে জঙ্গিদের হুমকির মুখেও বইমেলা অংশ নিতে দেশে এসেছিলেন তিনি। ঘটনার পর শাহবাগ থানায় অভিজিতের বাবার দায়ের করা মামলায় এর আগে ১০ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের ‘প্রধান সন্দেহভাজন’ মুকুল রানা ওরফে শরিফুল খিলগাঁওয়ে গত বছরের ১৯ জুন পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..