কী ও কেন

আমরা হাই তুলি কেন?

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
শুধু মানুষ নয় বিড়াল, কুকুর, পাখি এমনকি সাপও হাই তোলে। এমনকি গর্ভজাত শিশুরাও হাই তোলে। কিন্তু আমরা হাই তুলি কেন? বিভিন্ন সময় এ নিয়ে গবেষণা হয়েছে। সাধারণভাবে মনে করা হয় যে হাই তোলার সময় আমরা বেশি পরিমাণ বাতাস গ্রহণ করি। তাই হাই তোলার পেছনে মূল কারণ বেশি পরিমাণ অক্সিজেন গ্রহণ। কিন্তু পরীক্ষার মাধ্যমে ১৯৮৭ সালে এটি প্রমাণিত হয় যে হাই তুলবার ফলে শরীরে অক্সিজেন বা কার্বন-ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ বাড়েও না বা কমেও না- অর্থাৎ রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ বাড়াবার ক্ষেত্রে হাই তোলার কোনো ভূমিকা নেই। ২০০৭ সালে প্রথম ধারণা করা হয় যে মাথার তাপমাত্রা ঠাণ্ডা করাই হাই তোলার পেছনে একটি প্রধান কারণ। মস্তিস্কের তাপমাত্রার মূল নিয়ন্ত্রক তিনটি। সেগুলো যথাক্রমে শরীরের তাপমাত্রা, রক্তপ্রাবহ এবং মেটাবলিজম। হাই তোলার সময় আমরা চোয়ের পেশি টানটান করি যা মুখে, ঘাড়ে এবং মাথায় রক্তপ্রবাহ বাড়িয়ে দেয় এবং তা মাথা ঠাণ্ডা করতে সাহায্য করে। এ লক্ষ্যে একটি পরীক্ষা করা হয় সে পরীক্ষায় যথাক্রমে কিছু ব্যক্তিকে হাই তোলার ভিডিও দেখানো হয়। যাদের মধ্যে কারও কারও মাথা গরম বাক্সে আবদ্ধ রাখা হয় এবং বাকি ব্যক্তিদের ঠাণ্ডা বাক্সে। মানসিকভাবে হাই তোলার ছবি দেখলে আমরাও হাই তুলি। এ প্রবণতা শুধুমাত্র শিম্পাঞ্জি এবং মানুষদের মধ্যেই দেখা যায়। খুব ছোট শিশুদরে মধ্যে বা অটিস্টিকদের মধ্যে তাই তা দেখা যায় না। পরীক্ষায় দেখা যায়, যাদের মাথা গরম বাক্সে ছিল তাদের প্রায় ৪১% ঘন ঘন হাই তুলতে থাকে। অন্যদিকে যাদের মাথা ঠাণ্ডা বাক্সে আবদ্ধ ছিল তাদের মধ্যে মাত্র ৯% ব্যক্তি হাই তোলে। পরবর্তীকালে ২০১০ সালে ইঁদুরের মস্তিস্কের ওপর পরীক্ষা করে দেখা হয় যে হাই তোলার পর মাথার তাপমাত্রা কমে যায়। আমরা জানি যে মাথায় রক্তের তাপমাত্রা ধমনির রক্তের চেয়ে প্রায় ০.২ সেন্টিগ্রেড বেশি। তাই যখন আমরা হাই তুলি মাথায় রক্তপ্রবাহ বেড়ে যায়, মাথা গরম রক্ত বের হয়ে আসে এবং নিচ থেকে ঠাণ্ডা রক্ত মাথায় প্রবেশ করে। এছাড়াও এসময় শীতলিকরণ প্রক্রিয়াও সংঘটিত হয়। আমরা হাই তোলার সময় মুখ বা নাক দিয়ে ঠাণ্ডা বাতাস নিই। তা ধমনীর গরম রক্তের সংস্পর্শে এসে তাকে ঠাণ্ডা করে দেয় এবং সে উত্তাপকে বাইরে নিয়ে যায়। তাই আমাদের শরীরের চারপাশে তাপমাত্রা বেশি থাকলে হাই বেশি ওঠে এবং শরীরের চারপাশে তাপমাত্রা কম থাকলে হাই ওঠা কমে যায়।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..