তৃণমূল কি ভাঙছে? নেতাদের ওপর নজরদারি

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা বিদেশ ডেস্ক : পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য রাজনীতিতে জনপ্রিয়তায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিকল্প এখনো গড়ে ওঠেনি। পশ্চিমবঙ্গের এই মুখ্যমন্ত্রীই দলের সর্বেসর্বা। ১৯৯৮ সালের ১ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্রেস ভেঙে তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। গত জানুয়ারিতে ১৯ বছরে পা দিয়েছে তৃণমূল। এত দিন পর প্রশ্ন উঠেছে, তিল তিল করে গড়া তৃণমূল কী ভেঙে যেতে বসেছে? ২০০৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের ৪২টি আসনের মধ্যে মাত্র একটি আসনে জিতলেও হাল ছাড়েননি মমতা। দলকে প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করেছেন। বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটে শরিক হওয়ার খেসারত হিসেবে মাত্র একটি আসনে জিতেছিলেন তিনি। সেটি ছিল তাঁর নিজের আসন। বিজেপির সঙ্গে গাঁট বাঁধাটা সুনজরে নেননি এই রাজ্যের সংখ্যালঘুরা। রাজ্যের ২৮ শতাংশ সংখ্যালঘু শ্রেণির মানুষের দেওয়া জবাব থেকেই শিক্ষা নিয়েছিলেন মমতা। এরপর বিজেপি জোট ছেড়ে লোকসভা নির্বাচনে জিতেছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে জিতে নেন ৩৪টি আসন। এরপর তাঁর সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার পালা। এর আগে ২০১১ ও ২০১৬ সালে রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে বামফ্রন্টকে তুলোধুনা করে পশ্চিমবঙ্গের শাসনক্ষমতায় আসেন তিনি। তৃণমূলের জন্ম থেকে মমতার ছায়াসঙ্গী ছিলেন মুকুল রায়। মুকুল রায়কে বলা হতো তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড। গত ২৫ সেপ্টেম্বর তৃণমূল ছাড়েন মুকুল রায়। তবে রাজ্যসভার সদস্যপদ ছাড়েননি তিনি। ঘোষণা দিয়েছিলেন, পূজার পরই তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে রাজ্যসভার সদস্যপদ ছাড়বেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..