মানুষ মানুষের জন্য

বিভিন্ন স্থানে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
সম্প্রতি দেশের উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যায় সর্বস্ব হারিয়ে খোলা আকাশের নীচে মানবেতর জীবনযাপন করা কয়েক লক্ষাধিক মানুষের অসহায় মানুষের পাশে ত্রাণ ও নগদ অর্থ সহায়তা নিয়ে দাঁড়িয়েছে সিপিবি ও বিভিন্ন গণসংঠন। বিভিন্ন জেলা থেকে পাঠানো সংবাদ: সিপিবি ঢাকা কমিটির ত্রাণ সংগ্রহ অভিযান: বন্যা দুর্গত অসহায় মানুষদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে ঢাকার সকল শাখার কমরেডদের ত্রাণ সংগ্রহের কাজে যোগ দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। এ পর্যন্ত মোহাম্মদপুুর, ধানমন্ডি, মিরপুর, কাফরুল, খিলগাঁও, সূত্রাপুর ও লালবাগ থানায় ব্যাপকভাবে ত্রাণ সংগ্রহের কাজ পরিচালনা করে নগদ অর্থ, চাল, স্যালাইন ও কাপড় সংগ্রহ করা হয়েছে। পার্টির ঢাকা কমিটির আওতায় সংগৃহীত ১,০০,০০০/ (এক লক্ষ টাকা), ১৫ বস্তা চাল ও খাবার স্যালাইন পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের নিকট হস্তান্তর করেন পার্টির ঢাকা কমিটির সভাপতি মোসলেহ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ডা. সাজেদুল হক রুবেল, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মাকসুদা আক্তার লাইলী, লূনা নূর ও খান আসাদুজ্জামান মাসুম। নেতৃবৃন্দ ত্রাণ সংগ্রহের কাজে সহায়তাকারী ঢাকাবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। বগুড়ায় ত্রাণ বিতরণ সিপিবির : বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার চন্দনবাইশা ইউনিয়নের ঘুঘুমারি গ্রামে বন্যার্তদের মাঝে চাল, ডাল, চিড়া, মুড়ি এবং কাপড় ত্রাণ বিতরণ করেছে সিপিবি বগুড়া জেলা কমিটি। গত ২৭ আগস্ট এই ত্রাণ বিতরণে ছিলেন, সিপিবি বগুড়া জেলা কমিটির সভাপতি জিন্নাতুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো. আমিনুল ফরিদ, সাবেক সভাপতি হাফিজ আহম্মেদসহ আরো অনেকেই। এছাড়া বগুড়ার ধুনটের ভান্ডারবাড়ী বাঁধে বন্যার্ত ৪০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে ছাত্র ইউনিয়ন ও যুব ইউনিয়ন। যুব ইউনিয়ন বগুড়া জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শুভ শংকর গুহরায় বাবুন, দপ্তর সম্পাদক মামুনূর রহমান, যুবনেতা সেলিম রেজা, ছাত্র ইউনিয়ন বগুড়া জেলা সংসদের সভাপতি মো. নাদিম মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আকতার-উজ-জামান, ধুনট উপজেলার আহবায়ক প্রণতি ভূষণ সোহাগ, যুগ্ম আহবায়ক রাসেল রানা, ছাত্রনেতা এলিয় মাহমুদ, ইয়ামিনসহ আরো অনেকেই ত্রাণ বিতরণে ছিলেন। বন্যার্তদের পুনর্বাসনে গাইবান্ধায় সিপিবির সমাবেশ : বন্যা দুর্গত মানুষের জন্য জরুরি ভিত্তিতে পুনর্বাসনের ব্যবস্থাসহ তাদের কাজ ও খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিতকরণে ৭ দফা দাবিতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি গাইবান্ধা জেলা কমিটি গত ২৮ আগস্ট শহরের ডিবি রোডে ১নং ট্রাফিক মোড়ে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ করেছে। বিক্ষোভ মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করে। অবিলন্বে উপরোক্ত দাবি পূরণে সরকারের কাছে জোর দাবি জানিয়ে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জেলা কমিটির সভাপতি মিহির ঘোষ, সাবেক জেলা সভাপতি ওয়াজিউর রহমান রাফেল, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, কৃষক সমিতির জেলা সাধারণ সম্পাদক ছাদেকুল ইসলাম, যুবনেতা শরিফুল ইসলাম শরিফ, ছাত্র ইউনিয়ন জেলা সাধারণ সম্পাদক আসামনী আকতার আশা প্রমুখ। একই সময় গোবিন্দগঞ্জ, সাঘাটা ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলা কমিটির উদ্যোগে অনুরুপ কর্মসূচিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপিতে আগামী ফসল না ওঠা পর্যন্ত এনজিও ঋণের কিস্তি বন্ধ, ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের কৃষিঋণ মওকুফ, জরুরি ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্ত সকল কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ-সারসহ কৃষি উপকরণ সরবরাহ, পরবর্তী ফসল না ওঠা পর্যন্ত দরিদ্র মানুষের জন্য ভিজিএফসহ বিভিন্ন কর্মসূচি চালু রাখা, ত্রাণ ও পুনর্বাসন কাজে সকল প্রকার অনিয়ম বন্ধ, জেলার বিভিন্ন এলাকায় বাঁধ ধ্বসের কারণ তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থ গ্রহণ, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জেলার সকল রাস্তা জরুরি ভিত্তিতে সংস্কারের দাবি জানানো হয়। ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা মহানগরের ত্রাণ বিতরণ জামালপুর, কুলকান্দি, পূর্বপাড়া, মুরাদাবাদ, চর কুলকান্দি, পাইলিং মাঠ, মধ্যপাড়া, চর ঝিগাতলা এলাকায় প্রায় সাড়ে তিনশ পরিবারের মাঝে দ্বিতীয় দফায় ত্রাণ বিতরণ করেছে ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা মহানগর শাখা। সংগঠনের মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক জহর লাল রায়ের সমন্বয়ে ৫ সদস্যের একটি দল গত ২৬ আগস্ট দেশের বন্যা দুর্গত এসব এলাকায় চাল, ডাল, আলু, তেল, লবণসহ খাদ্য সামগ্রী ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করে বন্যার্তদের মাঝে। ত্রান বিতরণকারী দলের অন্য সদস্যরা হলেন, ছাত্র ইউনিয়ন মহানগর সংসদের সহ-সভাপতি তাহসিন মল্লিক, কোষাধ্যক্ষ বিল্লাল হোসেন, স্কুল ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান রনি, তেজগাঁও থানার দপ্তর সম্পাদক ইমা, রমনা থানার সাংগঠনিক সম্পাদক আমির। দলে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংঠনের সহ-সভাপতি অনিক রায়। এর আগে গত ১৬ আগস্ট থেকে ২৫ আগস্ট পর্যন্ত ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ওষুধ, স্যালাইন, শুকনো খাবারসহ নগদ অর্থ সংগ্রহ করা হয়। ফরিদপুরে বানভাসিদের পাশে ছাত্র ইউনিয়ন ফরিদপুরে বানভাসিদের ত্রাণসামগ্রীসহ অন্যান্য সহায়তা গত ৩০ আগস্ট বিতরণ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ফরিদপুর জেলা সংসদ। ওইদিন বিকেলে ফরিদপুর সদর উপজেলার ডিক্রিরচর ইউনিয়নের বানভাসি মানুষের মাঝে এসব ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। মানবিক সহায়তার অংশ হিসেবে মজিদমুন্সি গ্রামের ৭০টি পরিবারে মধ্যে ৩ হাজার ৫০০ কেজি চালসহ, ডাল, আলু, তেল, লবণ, দিয়াশলাই ও মোমবাতি প্রদান করা হয়। এ সময় বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী, ফরিদপুর জেলা সংসদের সভাপতি মাসুদ হোসেনসহ ছাত্র ও যুব ইউনিয়নের সাবেক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ত্রাণ সহায়তা পেয়ে মজিদমুন্সি গ্রামের পেয়ারা বেগম বলেন, “ছাত্তরা আমাগো জন্যি যা পারিছে তা নিয়া আমাগো দিয়া গেলো, আমারা বেবাকেই খুশি অইছি। আল্লায় তাগো ভালা করুক।” বন্যার্তদের জন্য উদীচী’র ত্রাণ : সম্প্রতি দেশের উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যায় সর্বস্ব হারিয়ে খোলা আকাশের নীচে মানবেতর জীবনযাপন করা কয়েক লক্ষাধিক মানুষের অসহায় মানুষের পাশে ত্রাণ ও নগদ অর্থ সহায়তা নিয়ে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। একই সঙ্গে এইসব নিরন্ন ও গৃহহারা মানুষদের সাহার্য্যাথে সমাজের সকল শ্রেণির মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে প্রগতিশীল এই সাংস্কৃতিক সংগঠনটি। দেশে ও বিদেশে উদীচী’র সাড়ে তিনশতাধিক শাখা একযোগে এ সহায়তা কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে। কেন্দ্রীয় সংসদের তত্ত্বাবধানে এসব শাখা গণমানুষের কাছে গিয়ে বন্যার্তদের জন্য নগদ অর্থ, বস্ত্র, খাদ্যসামগ্রীসহ নানা ধরনের ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করে তা পৌঁছে দিচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের কাছে। যেসব জেলা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যেমন দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, জামালপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, গাইবান্ধা, যশোর, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার প্রভৃতি, সেসব জেলায় উদীচী সাংগঠনিকভাবে বন্যার্তদের মাঝে কয়েক দফা শুকনো খাবার, চাল, ডাল, তেল, আলু, চিনি, শিশুখাদ্য, নগদ অর্থ বিতরণ করেছে। এর মধ্যে ঠাকুরগাঁও জেলায় গৃহহীন ১০টি পরিবারকে ঘর তৈরি করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া, কেন্দ্রীয় সংসদের পক্ষ থেকে সারা দেশে উদীচীর সদস্যদের একদিনের খাবারের সমপরিমাণ অর্থ কেন্দ্রীয় ত্রাণ তহবিলে জমা দিতে বলা হয়েছে। পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন করার পর এখন দুর্গত এলাকায় গৃহ নির্মাণ, কৃষকদের জন্য ধানের বীজতলা তৈরি, শিক্ষার্থীদের জন্য বইখাতা বিতরণসহ নানা কার্যক্রম পরিচালনার উদ্যোগ নিয়েছে উদীচী। গাইবান্ধায় হরিজনদের উদীচীর ত্রাণ : ফুলছড়ি উপজেলার কালিরবাজার ও পুরাতন ফুলছড়ি হেডকোয়াটার এলাকায় বন্যা দুর্গত হরিজন সম্প্রদায়ের শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী ও নগদ অর্থ সম্প্রতি বিতরণ করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী গাইবান্ধা জেলা কমিটি। এসময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জেলা কমিটির সভাপতি জহুরুল কাইয়ুম, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল গণি রিজন, সহ-সাধারণ সম্পাদক শিরিন আকতার, কোষাধ্যক্ষ অহিদুজ্জামান রিমু, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মুরাদ জামান রব্বানী, সদস্য প্রবীর চক্রবতী, এসএম সন্ধ্যা রবিদাস, আদিবাসী ছাত্রপরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি সুমিতা রবিদাস, দলিত নেতা রাজেস বাসফোর, মিলন বাসফোর প্রমুখ। ত্রাণ বিতরণের আগে এক সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তারা বলেন, দলিত, আদিবাসী জনগোষ্ঠির পাশে উদীচী সব সময়েই ছিল এবং থাকবে। দলিত আদিবাসী এরা সবাই এদেশের অংশ, এদেরকে মূলধারায় এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব এদশের প্রত্যেকটি জনগণের। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এসব দলিতদের পাশে সমাজের বিত্তবানদের প্রতি এগিয়ে আসারও আহ্বান জানানো হয়। সারিয়াকান্দিতে উদীচীর ত্রাণ বিতরণ: বগুড়ার সারিয়াকান্দি কাজলা চরে বানভাসী মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। ত্রাণ বিতরণে উপস্থিত ছিলেন উদীচী বগুড়া জেলা সংসদের সহ-সভাপতি সন্তোষ পাল, সাধারণ সম্পাদক শাহীদুর রহমান বিপ্লব, সহ-সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক খান রনিক, সাংগঠনিক সম্পাদক কানিজ ফাতেমা লীনা, সরকারি আজিজুল হক কলেজ শাখা’র যুগ্ম-আহ্বায়ক সনি কর্মকার, উদীচী সারিয়াকান্দি শাখা’র সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ জামান প্রমুখ। উদীচীর ত্রাণ তহবিলে সহযোগিতাকারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বক্তারা বলেন, দেশে চলমান ভয়াবহ বন্যা সরকারের একার পক্ষে সমাধান করা সম্ভব নয়। সরকারের পাশাপাশি বিত্তবান মানুষসহ সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলোকে বানভাসিদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আহ্বান জানান বক্তারা। গাইবান্ধায় ছাত্র ইউনিয়নের স্মারকলিপি : বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের আগামী ৬ মাসের বেতন মওকুফ, ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ, জেএসসি-এসএসসি’সহ বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষার ফরম পূরণের ফি ফ্রি, জরুরি ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মেরামত ও গাইবান্ধা সরকারি কলেজ মাঠের জলাবদ্ধতার সমস্যা দ্রুত নিরসনের দাবিতে গত ৩০ আগস্ট শহরে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন গাইবান্ধা জেলা সংসদ। বিক্ষোভ মিছিল শেষে শহরস্থ ১নং রেলগেটে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা সংসদের সভাপতি তপন দেবনাথ, সাধারণ সম্পাদক আসমানী আক্তার আশা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রানু সরকার, দপ্তর সম্পাদক ওয়ারেস সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি, ছাত্র ইউনিয়ন খোলাহাটি আঞ্চলিক কমিটির আহ্বায়ক জাকির হোসেন জাকির হোসেন, দারিয়াপুর আমানউল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি হাসানুজ্জামন প্রমুখ। এছাড়াও সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন যুব ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রতিভা সরকার ববি, ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহসভাপতি মিঠুন রায়। সমাবেশে বক্তারা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে ছাত্র ইউনিয়ন উত্থাপিত দাবিসমূহ দ্রুত বাস্তবায়নের জোর দাবি জানান।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..