মমতার মাথার জন্য বিজেপি নেতার পুরস্কার ঘোষণায় ভারতে ক্ষোভ

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা বিদেশ ডেস্ক : ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) এক নেতার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাটা মাথার দাম ঘোষণা করা নিয়ে দেশজুড়ে ক্ষোভের ঝড় বইছে। সম্প্রতি হিন্দুদের দেবতা হনুমানের জন্মদিন উপলক্ষে একটি সমাবেশে পুলিশ বাধা দেওয়ার পর বিজেপি’র যুব মোর্চার নেতা যোগেস ভার্সনে হুমকি দিয়ে বলেছেন, মততার মাথা কেটে কেউ তার হাতে দিলে পুরষ্কার হিসাবে তাকে ১১ লাখ রুপি দেবেন তিনি। মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস ভার্সনির এ মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে তার গ্রেপ্তার দাবি করেছে। তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় একে ‘রীতিমতো খুনের হুমকি’ বলে বর্ণনা করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভার্সনির বক্তব্যের ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে। টুইটারে বহু ভারতীয়ই তার কথার তীব্র সমালোচনা করেছেন। এ সমস্ত নির্বোধদের বিরুদ্ধে সরকার এবং বিজেপি নেতাদের কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ। ভার্সনের দাবি, মমতার নির্দেশে পুলিশ হনুমান ভক্তদের উপর বর্বর নির্যাতন করেছে। তিনি মমতাকে ‘রাক্ষুসী’ আখ্যা দেন। মমতার বিরুদ্ধে ভার্সনের অভিযোগ, মমতা তার রাজ্যে পুজো করতে দেন না। হনুমান জয়ন্তীতে সমাবেশ করতে দেন না। তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের তোষণ করছেন। একারণে তাকে শাস্তি পেতে হবে। দলের সদস্যের এ ধরনের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছে বিজেপি। পার্লামেন্টে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং বিজেপির ভাইস প্রেসিডেন্ট মুখতার আব্বাস নাকভি বলেন, “আমি এধরনের বক্তব্যের নিন্দা জানাচ্ছি। কেন্দ্রীয় সরকার তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।” বিবিসি’র খবরে বলা হয়, ৯ এপ্রিল বিরভূম শহরে মুসলিম অধ্যুষিত একটি এলাকায় হনুমান ভক্তদের সমাবেশে প্রবেশে পুলিশ বাধা দেয় এবং সমাবেশকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পুলিশ লোকজনকে রাস্তায় ফেলে অমানবিকভাবে পিটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন ভার্সনে। ওই ঘটনার ভিডিও দেখেই ভার্সনে মমতাকে নিয়ে মন্তব্য করেন। গোটা ঘটনার জন্য তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দায়ী করেছেন ভার্সনের মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার পর সবাই তার নিন্দায় সরব হওয়ার পাশাপাশি পার্লামেন্টেও উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..