ডাচ নির্বাচনে উগ্রপন্থিদের হার

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : নেদারল্যান্ডসের মধ্যপন্থি প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট গত সপ্তাহের সাধারণ নির্বাচনে উগ্র জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপুল ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছেন। তার দল ভিভিডি পার্টি সহজ জয় পেয়েছে। ভোটের এ ফলকে ‘ভ্রান্ত পপুলিস্টদের’ পরাজয় বলেও আখ্যায়িত করেছেন রুট। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে সাম্প্রতিককালে আমজনতাকে তোষণের রাজনীতির কারণে পপুলিস্টদের উত্থানে ইউরোপজুড়ে এ নির্বাচন নিয়ে আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছিল। নেদারল্যান্ডসের অভিবাসন ও ইসলামবিরোধী এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ছাড়তে চাওয়া দলগুলো কট্টর জাতীয়তাবাদী প্রচারণার মাধ্যমে মার্ক রুটকে বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিল। জনমত জরিপের বিভিন্ন পর্যায়ে উগ্র ডানপন্থীরা ভালো ফল করেছিল। প্রায় সব ভোট গণনার পর গতকাল বৃহস্পতিবার দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রীর দল ভিভিডি পার্টি ৩৩টি আসন পেয়েছে। তাঁর প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেওয়া অভিবাসন ও ইসলামবিরোধী এমপি গ্রিট ভিল্ডার্সের কট্টর ডানপন্থী ফ্রিডম পার্টি পায় ২০ আসন। এ সাফল্যের মধ্য দিয়ে মার্ক রুট টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী পদে বহাল থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে। বিতর্কিত ফ্রিডম পার্টি দ্বিতীয় স্থান পেলেও এর নেতা ভিল্ডার্স কিছুটা হতাশ। কারণ, জনমত জরিপে তারা ভালোই এগিয়ে ছিলেন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা বলছেন, কারণের মিশ্র প্রতিক্রিয়ায় রুট জিতে গেছেন। ইউরোপজুড়ে কট্টর জাতীয়তাবাদীদের সাম্প্রতিক উত্থানের পরিপ্রেক্ষিতে মনে হয়েছিল, ভিল্ডার্সরাও সেই ধারা বহাল রাখবেন। জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলসহ ইউরোপীয় নেতাদের অনেকে রুটকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। আগামী সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে ম্যার্কেলও অভিবাসনবিরোধী দলগুলোর জোর প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখোমুখি হবেন। ফ্রান্সেও কট্টরপন্থী রাজনীতিক মারিন লো পেনের পক্ষে জনমত বেড়েছে। ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জ্যঁ-ক্লদ ইয়ুঙ্কার ডাচ প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, নেদারল্যান্ডসের নির্বাচনের ফলাফল অভিবাসনবিরোধীদের হতাশ করেছে। এটা অনেকের জন্য অনুপ্রেরণামূলক।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..