যুদ্ধাপরাধ

সাক্ষীদের হুমকি, আমজাদের জামিন বাতিল

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার আসামি যশোরের বাঘারপাড়ার মো. আমজাদ হোসেন মোল্লার জামিন বাতিল করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। সাক্ষীদের হুমকি দেওয়া হয়েছে এ অভিযোগের ভিত্তিতে প্রসিকিউশন এ আসামির জামিন বাতিলের জন্য আবেদন করেন। সেই আবেদনের শুনানি শেষে গত ১৭ নভেম্বর ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিচারিক প্যানেল এ আদেশ দেন। আদালতে প্রসিকিউটর ছিলেন রেজিয়া সুলতানা চমন। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী গাজী এম এইচ তামিম। ২০১৬ সালের ৪ এপ্রিল এ মামলার তদন্ত শুরু হয়ে ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিল শেষ হয়। মামলায় সাক্ষী করা হয়েছে ৪০ জনকে। আসামি পাঁচজনের মধ্যে গ্রেপ্তার ছিলেন মো. আমজাদ হোসেন মোল্লা। পরে তাকে জামিন দেয় ট্রাইব্যুনাল। জামিন পেয়ে তার পক্ষের লোকজন সাক্ষীদের হুমকি দিয়ে আসছিল বলে অভিযোগ প্রসিকিউশনের। এ মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালে আটক, নির্যাতন, হত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের চারটি অভিযোগ আনা হয়েছে। আমজাদ মোল্লা যশোর বাঘারপাড়া থানার রাজাকার কমান্ডার ছিলেন। তিনি ১৯৭১ সালে মুসলিম লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। আসামিদের বিরুদ্ধে রয়েছে জেলার বাঘারপাড়া থানাধীন উত্তর চাদঁপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তাকারী মো. ময়েনউদ্দিন ওরফে ময়না এবং মো. আয়েনউদ্দিন ওরফে আয়েনকে অপহরণ করে হত্যার অভিযোগ। একই গ্রামের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের লোক ও আহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা দানকারী ডা. নওফেল উদ্দিন বিশ্বাসকে হত্যা, গাইদঘাট গ্রামের সুরত আলী বিশ্বাস ও মোক্তার বিশ্বাসকে অপহরণ করে হত্যা এবং মাগুরা জেলার শালিখা থানার সীমাখালীর চিত্রা নদীর খেয়াঘাটের মাঝি রজব আলী বিশ্বাসকে আটক করে হত্যা করার অভিযোগও রয়েছে।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..