‘কৃষকের সংঘবদ্ধ লড়াইয়ে জয় এল’

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : অনড় মনোভাব দেখানোর পরও আন্দোলনের চাপে তিন বিতর্কিত কৃষি আইন নিয়ে পিছু হটল নরেন্দ্র মোদীর সরকার। ১৯ নভেম্বর আইন প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘোষণা আসতেই একে কৃষকদের আন্দোলনের জয় বলে অভিহিত করেছে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিআই) ও ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)- সিপিএম। আলাদা আলাদা বিবৃতিতে তারা কৃষকদের এই জয়কে ঐতিহাসিক অভিহিত করে বলেছে, সংসদে পুরোপুরি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে। সিপিআই তাদের বিবৃতিতে বলেেেছ, কৃষকদের ক্লান্তিহীন ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ সংগ্রামই তাদেরকে বিজয়ী করেছে। আর সিপিএম মনে করিয়ে দিয়েছে আন্দোলন বানচালে মোদী সরকারের ‘নোংরা চেষ্টার’ কথা। “সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার নেতত্বে লক্ষাধিক কৃষকের সংঘবদ্ধ লড়াইয়ে জয় এল। মোদী সরকারের সমস্ত নোংরা চেষ্টা পরাজিত হয়েছে। স্বৈরাচারী রাজত্ব বাধ্য হয়েছে তিন কালা কৃষি আইন প্রত্যাহার করতে। কৃষক মোদী সরকারকে শিক্ষা দিল: স্বৈরাচার কাজ করে না। শহীদ কিষাণদের আমরা স্মরণ করছি, তাদের শ্রদ্ধা জানাচ্ছি, ’ বলা হয়েছে তাদের বিবৃতিতে। এদিকে কৃষি আইন প্রত্যাহার করা হবে মোদীর এমন ঘোষণার পরও সংসদে আইনগুলো বাতিল না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত রাখার তাগিদ দিয়েছেন কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইত। “যথাযথ সংসদীয় পদ্ধতিতে আইনগুলো বাতিল করার পরেই আমরা বিক্ষোভ প্রত্যাহারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। কৃষকদের অন্যান্য সমস্যা নিয়েও আলোচনা করা দরকার, ” তিনি বলেছেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..