কৃষক সমিতি

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
প্রতিবাদের মুখে সেচের পানি ছাড়তে বাধ্য হলো ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান আশুগঞ্জ উপজেলার সোহাগপুর গ্রামের আব্বাস উদ্দিন কলেজের পাশের্^ হাইওয়ে রোডের কালভার্টের কাজ করার জন্য রাস্তার দক্ষিণে গত ২৪ মার্চ সকালে সেচ প্রকল্পের পানি বন্ধ করে দিয়েছিল ভারতীয় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। এতে প্রায় ৪০০ বিঘা ফসলীজমি পানির অভাবে ক্ষতিগ্রস্থের সম্মূখীন হয়। এ সময় সোহাগপুর গ্রামের কৃষক সমিতির সকল কৃষকগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভারতীয় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের বিরূদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তুললে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের উচ্চতর কর্মকর্তাগণ কালভার্ট নির্মাণের কাজ বন্ধ করে সেচের পানি ছাড়ার যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করতে বাধ্য হয়। এ সময় বাংলাদেশ কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাজিদুল ইসলাম, জেলা কৃষক সমিতির তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আছমা খানম, স্থানীয় কৃষক নেতা ইসরাঈল মৃধা, হাজী দানা মিয়া ও আক্তার হোসেন সিকদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত কৃষকদের উদ্দেশ্যে নেতৃবৃন্দ বলেন, ঐক্যবদ্ধ থাকলে সকল প্রকার আন্দোলনের বিজয় ছিনিয়ে আনা সম্ভব। নেতৃবৃন্দ আপাতত চার লেনের নির্মাণ কাজ বন্ধ রেখে আশুগঞ্জ-শাহবাজপুর পর্যন্ত ৮ মিটার প্রশস্থ সেচ ক্যানেল নির্মাণ ও পিডিবি এর রিজার্ভার পুকুরটি পুনঃখননের দাবি জানান। বিজ্ঞপ্তি কেশবপুরে কৃষক সমিতির গ্রাম কমিটি যশোরের কেশবপুরে বাংলাদেশ কৃষক সমিতির শিকারপুর গ্রাম কমিটি গঠিত হয়েছে। গত রোববার সন্ধ্যায় উঠান বৈঠকের মাধমে কমিটি গঠিত হয়। কৃষক সুজায়েত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা কৃষক সমিতির সহসভাপতি আইনজীবী আমিনুর রহমান হিরু, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, জেলা কমিটি সদস্য আনন্দ চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন কৃষক আনিছুর রহমান, আবদুল জব্বার, রেজাউল করিম, রজব আলী ও সাংবাদিক দিলীপ মোদক। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে নূর অলীকে সভাপতি এবং রেজাউল করিমকে সাধারণ সম্পাদক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ঠ শিকারপুর গ্রাম কমিটি গঠিত হয়। বিজ্ঞপ্তি

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..