ভারতে বার্ড ফ্লু সর্বোচ্চ সতর্কতা

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : বিপুল সংখ্যক মৃত পাখির শরীরে এভিয়ান ফ্লু শনাক্ত হওয়ার পর সংক্রমণ মোকাবেলায় ভারত বিভিন্ন রাজ্যের পোলট্রি খামারের লাখ লাখ হাঁস-মুরগি নিধনের কাজ শুরু করেছে। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার এরই মধ্যে ‘সর্বোচ্চ সতর্কতা’ জারি করে বিভিন্ন রাজ্যকে সংক্রমণ মোকাবেলায় ‘জরুরি ব্যবস্থা’ নিতে নির্দেশনা দিয়েছে। বার্ড ফ্লুর বেশিরভাগ ‘স্ট্রেইন’ বা ধরন মানুষের জন্য তুলনামূলক কম ঝুঁকিপূর্ণ হলেও মৃত কিংবা দৃশ্যত অসুস্থ পাখিকে স্পর্শ না করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারীর বিপদের মধ্যেই ভারতে এবার এভিয়ান ফ্লু’র এ খাঁড়া নেমে এল। একাধিক রাজ্যে কয়েক হাজার হাঁস, মুরগি, কাক ও পরিযায়ী পাখির মৃতদেহ পাওয়ার পর সপ্তাহখানেক আগে কর্মকর্তারা প্রথম এইচ৫এন৮ এর উপস্থিতি শনাক্ত করেন। দেশটিতে শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগীর দৈনিক সংখ্যা একটু একটু করে কমতে দেখা গেলেও কর্মকর্তারা এখন আগামী কয়েক মাসের মধ্যে কয়েক কোটি নাগরিককে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এ কারণেই রাজ্যগুলোকে বার্ড ফ্লু নিয়ন্ত্রণে দ্রুত হাঁস-মুরগি নিধনসহ অন্যসব ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। অনেক রাজ্যে এরই মধ্যে পোলট্রি দোকান ও ডিম বিক্রি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ভারতের মধ্যে এখন পর্যন্ত কেরালা, হিমাচল, মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানেই বার্ড ফ্লু-র প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। গত সপ্তাহে কেবল ৫ জানুয়ারিতেই কেরালায় ২৪ হাজারের কাছাকাছি হাঁস ও অন্যান্য পাখির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ রাজ্যের কোট্টায়ামেই প্রথম এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের এইচ৫এন৮ ‘স্ট্রেইন’ ধরা পড়ে। হিমাচলের ক্যাংরা শহরে ২৭ হাজার রাজহাঁসের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পং ডম লেকে মিলেছে প্রায় দুই হাজার ৪০০ পরিযায়ী পাখির মৃতদেহ মিলেছে। মধ্যপ্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলে কয়েকশ কাকের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। হরিয়ানার পঞ্চকুলায় ১০ দিনে ৪ লাখ হাঁস-মুরগির মৃত্যুর খবর মিললেও তা যে বার্ড ফ্লু-তেই হয়েছে তা নিশ্চিত করেনি সেখানকার সরকার। পশ্চিমবঙ্গেও এখন পর্যন্ত বার্ড ফ্লু কোনো অস্তিত্ব মেলেনি। এ পরিস্থিতিতে কেরালা, হরিয়ানা ও মধ্যপ্রদেশের আশপাশের রাজ্যগুলোও নানান সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিচ্ছে। কেরালা সীমান্তে ২৬টি চেকপোস্ট বসিয়ে হাঁস-মুরগি এবং পোলট্রি পণ্য সরবরাহের উপর নজরদারি চালাচ্ছে তামিল নাড়ু সরকার। সংক্রমণের ছড়িয়ে পড়া রুখতে ইতিমধ্যেই সব উদ্যান ও অভয়ারণ্যকে সতর্কতা অবলম্বন করতে নির্দেশ দিয়েছে ভারতের মৎস্য এবং প্রাণী কল্যাণ দপ্তর। দিল্লিতে চালু করা হয়েছে বিশেষ কন্ট্রোল রুম।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..