সংবাদ সম্পাদক মুনীরুজ্জামানের মৃত্যু

সিপিবি’র শোক

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : দৈনিক সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক, দেশের সাংবাদিকতার জগতে অন্যতম পথিকৃৎ বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার মুনীরুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক পকাশ করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম গত ২৪ নভেম্বর এক শোক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, পাকিস্তান আমলে ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক হিসেবে আইয়ুব-ইয়াহিয়া স্বৈরাচারি ঔপনিবেশিক শাসন, মওদুদীবাদী জামাতীদের সাম্প্রদায়িক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তিনি সবসময় সোচ্চার ছিলেন। এর জন্য তার বিরদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছিল। ছাত্র জীবন শেষে তিনি কমিউনিস্ট পার্টির সার্বক্ষণিক হিসেবে পোস্তগোলা শিল্পাঞ্চলে শ্রমিক আন্দোলন সংগঠিত করার দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। তিনি প্রথম কমিটির প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পারন করেন। তিনি নব্বইর দশকের শুরুতে সিপিবি’র ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৯৯৩ সালে বিলোপবাদীরা পার্টির বিরুদ্ধে যে ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত করে তাতে ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় হয়ে যান। পরে সাংবাদিকতায় সক্রিয় হন। পূর্ব থেকেই তিনি সাপ্তাহিক একতা’র সাথে যুক্ত ছিলেন। তিনি সাপ্তাহিক যায়যায়দিন ও পরে দৈনিক সংবাদে সাংবাদিকতা করেন। মৃত্যুকালে তিনি সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, মুনীরুজ্জামান দেশ মাতৃকার মুক্তি সংগ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি পাকিস্তান আমলে দেশের স্বাধীনতার জন্য ও বাংলাদেশ আমলে গণতন্ত্র, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শ্রমিকস্বার্থ রক্ষার সংগ্রামে সামনের সারির যোদ্ধা ছিলেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, খন্দকার মুনীরুজ্জামান দেশের জন্য জাতির জন্য যে অবদান রেখে গেছেন তাঁর জন্য চির স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। নেতৃবৃন্দ তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানান। খন্দকার মুনীরুজ্জামানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতি, বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল, এক্য ন্যাপ, ভ্যানগার্ড।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..