মানিকগঞ্জে উদীচী কার্যালয়ে তল্লাশির নামে পুলিশি হয়রানির প্রতিবাদ

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : উদীচী মানিকগঞ্জ জেলা সংসদের কার্যালয়ে তল্লাশির নামে জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মামুন ও প্রচার সম্পাদক এম আর লিটনকে হয়রানি করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী কেন্দ্রীয় সংসদ। গত ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ রাতে এ হয়রানির ঘটনা ঘটে। মানিকগঞ্জ উদীচীর নেতাকর্মীরা জানান, ৯ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১১টার সময় কার্যালয়ে পুলিশ এসেছে সংবাদ পেয়ে সাথে সাথেই সেখানে ছুটে যান উদীচীর জেলা সাধারণ সম্পাদক। নিজের পরিচয় দিয়ে তল্লাশির কারণও জানতে চান তিনি। পুলিশ তার কথার কোনো উত্তর না দিয়ে উল্টো তার সঙ্গে দূর্ব্যবহার করে এবং তালা খোলার নির্দেশ দেয়। সাধারণ সম্পাদক তখন প্রচার সম্পাদক এম আর লিটনকে চাবি নিয়ে আসতে বলেন । লিটন এসে তালা খুলে দেন। পুলিশ তল্লাশি চালায়। তল্লাশি চলাকালে নিরাপত্তার স্বার্থে সাধারণ সম্পাদক ও লিটন বিষয়টি ভিডিও করতে গেলে এক পর্যায়ে তাদের মোবাইলও কেড়ে নেওয়া হয়। এই ঘটনায় বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ড. সফিউদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপন এক যৌথ বিবৃতিতে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, পুলিশ তার কর্তব্য পালনের জন্য তল্লাশি চালাতেই পারে, সেই কাজে বাধা দেয়ার কোনো কারণ নেই। কিন্তু তল্লাশির নামে উদীচীর জেলা নেতৃবৃন্দের সাথে অশোভন ও অসৌজন্যমূলক আচরণ মেনে নেয়া যায় না। দিনে দিনে পুলিশ বাহিনীর কতিপয় সদস্যের ঔদ্ধত্বপূর্ণ আচরণ বেড়েই চলেছে মন্তব্য করে উদীচী নেতারা বলেন, সমাজে ও রাষ্ট্রে অপরাধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হলেও রাষ্ট্রের নাগরিকদের সাথে দুর্ব্যবহার ও বেআইনি আচরণের কারণে পুলিশ সাধারণ মানুষের কাছেও ব্যাপক অ-জনপ্রিয় হয়ে পড়েছে। নেতৃবৃন্দ তল্লাশির নামে হয়রানি ও উদীচী নেতাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা দোষী পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানান।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..