ক্ষেতমজুর সমিতির ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচি

গ্রামে গ্রামে বিনামূল্যে করোনা টেস্ট ও চিকিৎসা, ত্রাণ বিতরণের দাবি

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email

একতা প্রতিবেদক : করোনা মহামারি থেকে মানুষ বাঁচাতে গ্রামে গ্রামে বিনামূল্যে করোনা টেস্ট ও চিকিৎসা, কর্মহীন ও বন্যাক্রান্ত মানুষের জন্য সরকারি উদ্যোগে পর্যাপ্ত খাদ্য ও আশ্রয়স্থল, সকল ঋণের কিস্তি করোনাকাল পর্যন্ত মওকুফসহ ছয় দফা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির নেতৃবৃন্দ। গত ২২ জুলাই দেশব্যাপী উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচি পালনকালে নেতৃবৃন্দ এসব দাবি জানান। ধর্না কর্মসূচি পালনকালে উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত অবস্থানে আরো নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা মহামারির কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সাধারণ গরিব ক্ষেতমজুরসহ

শ্রমজীবী মানুষ। তারা কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছে। অনেকেই করোনার লক্ষণ নিয়ে বিনা চিকিৎসায় হাসপাতালের দরজায় ঘুরছে। করোনাকালে সরকারি যৎসামান্য যা সহায়তা বরাদ্দ করা হয়েছিল তার বেশিরভাগই লুটপাট হয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীর ৫০লক্ষ পরিবারকে ২৫’শ টাকা করে যে সহায়তা দেওয়ার কথা তাতেও বিরাট দুর্নীতি-স্বজনপ্রীতি-দলীয়করণ হয়েছে। ক্ষেতমজুর সমিতির নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে গ্রামে গ্রামে করোনা শনাক্তকরণ টেস্ট ও অসুস্থদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত, করোনাকাল পর্যন্ত সকল কর্মহীন গরিব মানুষকে পর্যাপ্ত খাদ্য সহায়তা প্রদান, সকল প্রকার ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধ

করে নতুন করে বিনাসুদে ঋণ প্রদান, বরাদ্দ লুটপাটকারীদের কঠোর শাস্তি দাবি করেন। ধর্না কর্মসূচিতে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে কর্মসৃজন কর্মসূচি পুনরায় সকল উপজেলায় চালু করে মজুরি বাড়ানো, রেশনিং ব্যবস্থা চালুর জোর দাবি করেন। বিভিন্ন জেলায় কর্মসূচি পালনের খবর : পঞ্চগড়: পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। উপজেলা সভাপতি মো. মনসুর আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা সভাপতি মো. আশরাফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক রহিদুল ইসলাম মিন্টু, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুস আলী, উপজেলা সিপিবি সভাপতি মো. হাসান আলী ও সাধারণ সম্পাদক হরেন্দ্রনাথ

বর্মন। দেবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. প্রত্যয় হাসানের হাতে ছয় দফা বাস্তবায়নের দাবিনামা হস্তান্তর করা হয়। লালমনিরহাট: লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা ও জেলা সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রফিকুল ইসলাম অপু, সাংগঠনিক সম্পাদক নিরঞ্জন কুমার সিংহ, জেলা কমিটির অন্যতম নেতা নবীন্দ্র নাথ, কালীগঞ্জ উপজেলা ক্ষেতমজুর সমিতির আহ্বায়ক নয়ন কুমার রায়, ডা. শ্যামল রায় ও নিমাই চন্দ্র রায়। কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় অনুষ্ঠিত ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য

রাখেন ক্ষেতমজুর সমিতির কেন্দ্রীয় নেতা দেলোয়ার হোসেন, অ্যাড প্রদীপ রায়, বাবু মিয়া, সদর উপজেলায় ধর্না কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় নেতা আখতারুল ইসলাম রাজু, সুব্রতা রায়, নূর মোহাম্মদ আনসার, শামসুল ইসলাম, ফাতেমা বেগম এবং রাজারহাট উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির সভাপতি উপেন্দ্রনাথ রায়, নরেশ চন্দ্র রায়, গৌতম রায় সুব্রতা রায়, নূর মোহাম্মদ আনসার। ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত ধর্না কর্মসূচিতে ফজলে খোদা হেলন, অনিল রায়, উপজেলা সভাপতি আনোয়ার চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক রথিন্দ্র রায়। পীরগঞ্জ উপজেলা

পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা মেহেদি হাসান লেনিন, হুমায়ুন কবির, লিটন, শিহাবউদ্দিন, শুভ। রংপুর: রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা শাহাদত হোসেন খোকা, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সঞ্চয় কুমার বর্মন, আজগর আলী, কৃষক সমিতির নেতা হৃদয় কুমার বর্মন প্রমুখ। সমাবেশ শেষে ইউএনও’র কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। পীরগাছা উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় অন্যান্যের সময় বক্তব্য রাখেন, জেলা সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন, আজাহার

আলী রাজা, আয়েশা বেগম, শাহেরা বেগম, আমজাদ হোসেন প্রমুখ। বগুড়া: বগুড়া জেলার ধুনট উপজেলায় ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা সাহা সন্তোষ, উপজেলা কমিটির সহ-সভঅপতি শামসুল হক ভোলা ও সাধারণ সম্পাদক ডা. বিভূতিভূষণ শীল। শেরপুর উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত ধর্না কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা শ্রীকান্ত মাহাতো, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক নিমাই ঘোষ, শাহজাহান আলী সাজা, আব্দুস সামাদ ও সিপিবি নেতা হরিশংকর সাহা। নওগাঁ: নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। সভাপতি ডা. খয়ের আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয়

নেতা প্রদ্যুৎ ফৌজদার, রেবেকা সরেন, শফিকুল ইসলাম, আব্দুস সোবহান, ওহিদুর রহমান ও কৃষক সমিতির মনসুর রহমান ও যুব ইউনিয়ন নেতা অ্যাড. মমিনুল ইসলাম স্বপন। নাটোর: নাটোর জেলার বনপাড়া উপজেলায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা নির্মল চৌধুরী, উপজেলা সভাপতি মহাদেব মাহাতো, শহীদুল ইসলাম, ছাত্রনেতা হাসিবুল হাসান শান্ত। সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষরে সামনে ধর্না অবস্থানে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক শেখ সুলতান আহমেদ, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি

ইসমাইল হোসেন, শ্রমিক নেতা আলী হোসেন প্রমুখ। রায়গঞ্জ উপজেলায় অনুষ্ঠিত ধর্না অবস্থানে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা ডা. প্রদীপ ভৌমিক, কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক শেখ মোস্তফা নূরুল আমিন। তাড়াশ উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত ধর্না কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন ২ আব্দুস সামাদ, খালেক ও জহির উদ্দিন। পিরোজপুর: পিরোজপুরের সদর উপজেলায় ক্ষেতমুজর সমিতির উদ্যোগে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। করোনাকালে ক্ষেতমজুরসহ গ্রামীণ মজুরদের কাছ থেকে ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধ, করোনায় কর্মহীন দিনমজুরসহ সকল গরিব-দুঃখীদের বিনামুল্যে খাদ্য বিতরণ, গ্রামে গ্রামে বিনামূল্যে করোনার

র্যাপিড টেস্ট ও নমুনা সংগ্রহ বুথ স্থাপন এবং চিকিৎসাসহ ৬ দফা দাবিতে এ কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন জেলা ক্ষেতমজুর সমিতির সভাপতি ডা. তপন বসু, সহ-সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. হালিম, কমিউনিস্ট পার্টির নেতা স্বপন চক্রবর্তী, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের নেতা ইমন চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। বাগেরহাট: বাগেরহাট শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ধর্না অবস্থান কর্মসূচি ও দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি তুলে দেয়া হয়। এ সময় শরণখোলা উপজেলা শাখার আহ্বায়ক ইউসুফ খান, ভবতোষ মিস্ত্রি, ছাত্র ইউনিয়ন এর সাবেক সভাপতি গত সংসদ নির্বাচনে এই আসনে কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী শরিফুজ্জামান শরিফ,

সিপিবির উপজেলা সম্পাদক রতন দাস, সিপিবি নেতা ইসমাইল হোসেন লিটন, যুব ইউনিয়ন এর সঞ্জয় কুলু, কৃষক সমিতির মোশাররফ হোসেন বাবুল উপস্থিত ছিলেন। পটুয়াখালী: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা শাহাবুদ্দিন আহমদ, জেলা কমিটির নেতা আকন শাহাবুদ্দিন সহ উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে দেখা করেন এবং ৬দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবি করেন। মাদারীপুর: জেলার রাজৈর উপজেলায় অনুষ্ঠিত ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আবুল কালাম, সিপিবি

নেতা শানু মুরাদুজ্জামানসহ স্থানীয় ক্ষেতমজুর সমিতির নেতৃবৃন্দ। ফরিদপুর: জেলার মধুখালি উপজেলা কমিটির উদ্যোগে ধর্না ও অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। ক্ষেতমজুর সমিতির কেন্দ্রীয় নেতা আ. মালেক সিকদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখের ক্ষেতমজুর সমিতির মধুখালি উপজেলা কমিটির সভাপতি সামসুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আতিয়ার রব, ক্ষেতমুজুর নেতা মো. নাসিরউদ্দিন সেক ও রেজাউল করিম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সিপিবি প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড রফিকুজ্জামান লায়েক, সিপিবি ফরিদপুর জেলা কমিটির সা. সম্পাদক কমরেড অরুণ কুমার শীল। টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি

পালিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুর রউফ, উপজেলা কমিটির নেতা বাহাদুর ও আবু বক্কর। ময়মনসিংহ সদর উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা সুশান্ত দেবনাথ খোকন, জেলা কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক রুকনোজ্জামান সোহেল, উপজেলা কমিটির মাজহারুল ইসলাম, আইয়োব আলী, নবী হোসেন। শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী উপজেলায় ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক মাসুম ইবনে শফিকসহ উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ। কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদি উপজেলায় ক্ষেতমজুরদের

৬ দফা দাবিতে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের জেলা কমিটির সভাপতি সেলিম উদ্দিন খান ও জেলা সিপিবি সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। নোয়াখালী সদর উপজেলায় অনুষ্ঠিত ধর্না কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা ডা. আবু তাহের ভূইয়া ও স্থানীয় ক্ষেতমজুর নেতৃবৃন্দ। সংহতি বক্তব্য রাখেন জেলা সিপিবি সভাপতি কমরেড শহীদ উদ্দিন বাবুল, শ্রমিক নেতা মজিবুল হক মজিব। কুমিল্লা দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি চলাকালে উপজেলা কমিটির সভাপতি আবুল কাসেমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি পরেশ

কর। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা সিপিবি সভাপতি এবিএম আতিকুর রহমান বাশার, যুব ইউনিয়ন সভাপতি একেএম মিজানুর রহমান কাউছার, বিল্লাল হোসেন, আব্দুল ওয়াদুদ, আব্দুল বাতেন সরকার, মোখলেসুর রহমান। বুড়িচং উপজেলা পরিষদের সামনে ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। উপজেলা কমিটির সভাপতি আব্দুর রব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন সিপিবি প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল্লাহ আল কাফি রতন, সিপিবি নেতা বিকাশ দেব, ক্ষেতমজুর সমিতির নেতা জয়নুল আবেদীন। চান্দিনা উপজেলায় ধর্না কর্মসূচি পালনকালে অনুষ্ঠিত সমাবেশে উপজেলা কমিটির সভাপতি সুফিয়া বেগমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন মো. জামাল হোসেন,

লুৎফা বেগম, জুলেখা বেগম, মনোয়ারা বেগম, খলিলুর রহমান। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষক সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সুজাত আলী, সিপিবি নেতা সুধাংশু কুমার নন্দী। চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত ধর্না কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় আয়োজিত সমাবেশে উপজেলা কমিটির সভাপতি ডা. আবু নসর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ক্ষেতমজুর সমিতির নেতা নাসিমা আক্তার, নাফিজা আক্তার, যুব নেতা কামরুল হাসান, বেলায়েত হোসেন। এসব উপজেলায় সমাবেশ শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবর ৬দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হাতে পৌঁছে দেওয়া হয়।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..