শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনলাইন ক্লাসের জন্য ৭ শর্ত ছাত্র ইউনিয়নের

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : করোনাভাইরাসের সংক্রমণের পরিস্থিতিতে বন্ধ থাকলেও জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগ ও ইনস্টিটিউটকে ‘সীমিত সামর্থ্য’ দিয়েই অনলাইনে শিক্ষা-কার্যক্রম চালুর অনুরোধ জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এসব অনলাইন ক্লাস শুরু করার আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে সাত দফা শর্ত নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি সাখাওয়াত ফাহাদ ও সাধারণ সম্পাদক রাগীব নাঈমের পাঠানো বিবৃতিতে যে ৭টি শর্ত দেয়া হয়েছে, এগুলো হল- বিশ্ববিদ্যালয়কে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর অনলাইন ক্লাস করার ইন্টারনেট খরচ ও আর্থিক সংকটে থাকা শিক্ষার্থীদের সহায়তা দিতে হবে; যেসব শিক্ষার্থীর অনলাইন ক্লাসে অংশ নেয়ার মতো ডিভাইস নেই, তাদের ডিভাইস কেনার ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়কে অর্থায়নের ব্যবস্থা করতে হবে; রাষ্ট্র ও টেলিকম অপারেটরদের সহযোগিতা নিয়ে সব শিক্ষার্থীর জন্য উচ্চগতির ইন্টারনেট সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে; প্রত্যেক শিক্ষার্থীর সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে একটি পূর্ণাঙ্গ জরিপ পরিচালনার মাধ্যমে ডেটাবেইস তৈরি করতে হবে; শিক্ষার্থীরা যেকোনো সময়ে যেন প্রতিটি ক্লাস ডাউনলোড করতে পারেন, তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটসহ বিভাগ-ইনস্টিটিউটের ফেসবুক গ্রুপ, ইউটিউব চ্যানেল ও গুগল ড্রাইভে আপলোড করে রাখতে হবে, অনলাইন ক্লাস বিষয়ে শিক্ষকদের যথাযথ প্রশিক্ষণ দিতে হবে; ক্লাসে উপস্থিতির ক্ষেত্রে কোনো বাধ্যবাধকতা বা নম্বর রাখা যাবে না, এসব ক্লাসকে আনুষ্ঠানিক ক্লাস হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না; এবং শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে কাউন্সেলিং কার্যক্রমের পরিধি বাড়াতে হবে৷ বিবৃতিতে ছাত্রনেতারা বলেন, সমাজে এমনিতেই চরম বৈষম্যমূলক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তাই সব শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত না করে অনলাইন ক্লাস শুরু করা হলে তা হবে শিক্ষার্থীদের প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের চরম বৈষম্যমূলক আচরণ।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..