স্মরণসভা

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
খুলনায় অ্যাড. ফিরোজ আহমেদের স্মরণসভা বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য, খুলনা নগর কমিটির সাবেক সভাপতি, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের গণমানুষের নেতা কমরেড এডভোকেট ফিরোজ আহমেদের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ৯ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি’র খুলনা মহানগর কমিটির উদ্যোগে স্মরণসভা দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা মহানগর সিপিবি’র সভাপতি এইচ এম শাহাদাতের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মো. বাবুল হাওলাদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন– কেন্দ্রীয় সদস্য ও খুলনা জেলা সভাপতি ডা. মনোজ দাশ, কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, জেলা সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. এম এম রুহুল আমিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল হান্নান, কমরেড অ্যাড. ফিরোজ আহমেদের পুত্র ব্যারিস্টার তৌফিক আহমেদ, সিপিবি নেতা সুতপা বেদজ্ঞ, মিজানুর রহমান বাবু, মুক্তিযোদ্ধা নিতাই পাল, কিংশুক রায়, এস এম বাবর আলী, শ্রীবাস অধিকারী, ফজলুল হক, অধ্যাপক সঞ্জয় সাহা, ফিরোজ মাহমুদ, সরকার ভূষণ চন্দ্র তরুণ, শ্রমিক নেতা রুস্তম আলী হাওলাদার, রঙ্গলাল মৃধা, এস এম ইমরান সাঈদ চন্দন, মো. হেলাল, সাবেক ছাত্রনেতা অ্যাড. সুব্রত কু-ু, মহেন্দ্র নাথ সেন, হুমায়ুন কবির, অশোক বিশ্বাস, শরিফুল ইসলাম সেলিম, পলাশ দাস, অ্যাড. প্রীতিষ মণ্ডল, যুব ইউনিয়ন নেতা অ্যাড. নিত্যানন্দ ঢালী, আব্দুল হালিম, শাহিনা আক্তার, প্রভাষক জয়ন্ত মুখার্জী, আফজাল হোসেন রাজু, অ্যাড. খান আজরফ হোসেন মামুন, হরষিৎ মণ্ডল, কৃষকনেতা অ্যাড. হিমাংশু বাইন, অ্যাড. প্রণব কান্তি গোলদার, রাহাত খান, শ্রমিকনেতা মো. নূরুল ইসলাম, মো. সোহেল মিয়া, অশোক ঘোষ, দুলাল সরকার, আইআরভি’র কাজী খালিদ পাশা জয়, ছাত্রনেতা উত্তম রায়, সৌমিত্র সৌরভ, সুমাইয়া বান্না, রুকাইয়া ইয়াসমিন রিয়া, রুখশানা ইয়াসমিন রেশমি প্রমুখ। স্মরণসভায় বক্তারা বলেন, অ্যাড. ফিরোজ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা, রূপসা ব্রিজ নির্মাণ, লবণ পানিতে চিংড়ি চাষের বিরুদ্ধে, দেবহাটা-কালিগঞ্জসহ এ অঞ্চলের ভূমিহীন আন্দোলন, সর্বোপরি কৃষক-শ্রমিক মেহনতি মানুষের অধিকার আদায়সহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উন্নয়নের আন্দোলনে অগ্রসৈনিকের ভূমিকা পালন করেন। বিজ্ঞপ্তি কমরেড লেবু ও কমলেশ বেদজ্ঞের মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবি’র খুলনা মহানগর কমিটির উদ্যোগে গোপালগঞ্জের তৎকালীন হেমায়েত বাহিনীর হাতে ১৯৭৩ সালে নিহত কমরেড ওলিউর রহমান লেবু এবং কমরেড কমলেশ বেদজ্ঞের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ১০ মার্চ সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা মহানগর সিপিবি’র সভাপতি এইচ এম শাহাদাতের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মো. বাবুল হাওলাদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন– কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, জেলা সহ-সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল হান্নান, সিপিবি নেতা মিজানুর রহমান বাবু, সোনাডাঙ্গা থানা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নিতাই পাল, সদর থানা সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. নিত্যানন্দ ঢালী, সিপিবি নেতা কিংশুক রায়, সরকার ভূষণ চন্দ্র তরুণ, অ্যাড. সুব্রত কু-ু, শ্রমিক নেতা রঙ্গলাল মৃধা, কামরুল ইসলাম খোকন, নীরজ রায়, যুব ইউনিয়ন খুলনা জেলা সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক জয়ন্ত মুখার্জী, যুব নেতা অ্যাড. খান আজরফ হোসেন মামুন, আফজাল হোসেন রাজু প্রমুখ। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, কমরেড লেবু এবং কমরেড কমলেশ বেদজ্ঞ ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে ফরিদপুর অঞ্চলে নেতৃত্ব প্রদান করেন। দলমত নির্বিশেষে ব্যাপক জনপ্রিয় এই দুই নেতাসহ তৎকালীন ছাত্র ইউনিয়ন নেতা বিষ্ণু, মাণিককে হেমায়েতের সন্ত্রাসী বাহিনী হত্যা করে। নেতৃবৃন্দ সমাজতন্ত্র, সাম্যবাদের যাত্রা সফল করার লক্ষ্যে কমরেড ওয়ালিউর রহমান লেবু ও কমরেড কমলেশ বেদজ্ঞের ত্যাগকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে। বিজ্ঞপ্তি কমরেড আসলামউদ্দিনের ২য় মৃত্যুবাষির্কী পালিত ‘জীবন উৎসর্গ করেই পার্টি গড়ে তুলতে হয়’ এই কথাটা বলতেন কমরেড আসলামউদ্দিন, শুধু বলতেনই না, তিনি এই কথাটা বিশ্বাস করতেন তাই জীবনের ব্রত করেছিলেন, সেইজন্য জীবনের শেষ নিঃশ্বাসটি ছেড়েছেন পার্টির কথা বলে, শোষিত মানুষের কথা বলতে বলতে। গত ১৭ মার্চ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, সূত্রাপুর থানার উদ্যেগে আসলামউদ্দিনের ২য় মৃত্যুবাষির্কীর স্মরণসভায় বক্তারা এই কথাগুলো বলেন। থানা পার্টির সভাপতি আবু তাহের বকুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা কমিটির সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য জাহিদ হোসেন খান, থানা পার্টি বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক বিকাশ সাহা, নেসার আহামদ, রতন কুমার দাস, সাইফুল ইসলাম সমীর, গোলাম রাব্বী খান, আনোয়ার হোসেন, ওংকার নাথ ঝলক ও তুষার রহমান। বিজ্ঞপ্তি

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..