প্রবল আপত্তির মুখেও ইরাকে নতুন প্রধানমন্ত্রী

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা বিদেশ ডেস্ক : ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহ মোহাম্মদ তাওফিক আলাবিকে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন। কিন্তু বাগদাদে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখে এই নিয়োগ প্রত্যাখ্যান করেছে বিক্ষোভকারীরা। এর আগে ইরাকের প্রেসিডেন্ট সালিহ কলহযুক্ত পার্লামেন্টকে আলটিমেটাম দেন। বলে দেন, এর পরেও যদি পার্লামেন্ট পহেলা ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করতে ব্যর্থ হয় তাহলে তিনিই প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করার হুমকি দেন। এর দুই মাসেরও বেশি সময় পেরিয়ে গেছে। কিন্তু রাজনৈতিক অচলাবস্থার ইতি ঘটেনি। এ অবস্থায় প্রেসিডেন্ট সালিহ নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করেন। কিন্তু তার এ নিয়োগ প্রত্যাখ্যান করেছেন কয়েক মাস ধরে ইরাকের রাজনৈতিক ব্যবস্থা আমূল পাল্টে ফেলার দাবিতে আন্দোলনে থাকা জনগণ। রাজধানীর তাহরির স্কয়ারে তারা স্লোগান দেন- মোহাম্মদ আলাবিকে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর নাসিরিয়াতে বিক্ষোভকারীরা বিবৃতি দিয়েছে। তাতে আলাবিকে বেছে নেয়া সার্বিকভাবে প্রত্যাখ্যান করার কথা বলা হয়। গত বছরের অক্টোবর মাসে দুর্নীতি, বেকারত্ব, সরকারি সেবার অভাবের অভিযোগ তুলে রাজধানী বাগদাদ ও দক্ষিণাঞ্চলীয় কয়েকটি শহরে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। ইরাকের রাজধানী বাগদাদে শিয়া নেতা মুক্তাদা আল সদরের নেতৃত্বে অবস্থান ধর্মঘট অব্যাহত রেখেছে সরকারবিরোধীরা। সেখানে নিরাপত্তা রক্ষাকারীদের সঙ্গে নিয়মিত চলছিল সংঘর্ষ। ২৫ জানুয়ারি দাঙ্গা পুলিশ সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বিক্ষোভকারীদের দিকে গুলি ছোড়ে, তাদের স্থাপিত অস্থায়ী তাঁবুতে আগুন ধরিয়ে দেয়। দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর নাসিরিয়া, বসরা ও দিবানিয়েতে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়েছে নিরাপত্তা রক্ষাকারীদের।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..