‘ভারতীয় আগ্রাসন রুখে দাঁড়াও’

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : ফেলানী হত্যার নবম বছরে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ ও প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক আয়োজন করেছে আগ্রাসনবিরোধী ছাত্রমঞ্চ। গত ৭ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলের পর বিকেলে এই সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও প্রগতিশীল ছাত্রজোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী আল কাদেরী জয়। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নাসিরউদ্দীন প্রিন্স, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন কেন্দ্রীয় সভাপতি এম এম পারভেজ লেনিন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার, বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আতিফ অনিক, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা সুনয়ন চাকমাসহ অন্যন্য নেতৃবৃন্দ। সভায় সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহমুদ। সমাবেশে সংহতি জানিয়ে প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক আয়োজনে গান পরিবেশনা করেন গণসংগীত শিল্পী অরুপ রাহী, বিবর্তন, সাংস্কৃতিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন। সমাবেশে বক্তারা ফেলানী হত্যার বিচারসহ বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের অসম বাণিজ্য, ভারত কতৃর্ক তিস্তাসহ নদী ওপর বাঁধ নির্মাণ, রামপাল তাপবিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণ এবং সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের নতজানু নীতির তীব্র সমালোচনা করেন। এই বিষয়ে ছাত্র-জনতার মিলিত লড়াইয়ের উপর গুরুত্ব আরোপ করে বক্তারা দেশের সম্পদ ও সার্বভৌমত্বের উপর হুমকিস্বরুপ সমস্ত চুক্তি বাতিলের আহ্বান জানান বক্তারা।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..