ভারত: নির্ভয়ার ৪ ধর্ষকের ফাঁসি ২২ জানুয়ারি

Facebook Twitter Google Digg Reddit LinkedIn StumbleUpon Email
একতা প্রতিবেদক : দিল্লিতে ২০১২ সালে চলন্ত বাসে এক শিক্ষার্থীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে অভিযুক্ত চারজনের মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেছে ভারতের একটি আদালত। পরোয়ানা অনুযায়ী ২২ জানুয়ারি স্থানীয় সময় সকাল ৭টায় অক্ষয় ঠাকুর, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত ও মুকেশ সিংয়ের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। তিহার জেলের ভেতর একই সময়ে চারজনের ফাঁসি কার্যকরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছে তারা। ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে ধর্ষণের শিকার ২৩ বছর বয়সী ওই শিক্ষার্থী চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৩ দিন পর মারা যায়। এ নিয়ে ভারত ও বিশ্বজুড়ে ব্যাপক আন্দোলন শুরু হয়। দ্রুত বিচার আইনে ২০১৩ সালেই অভিযুক্ত এ চারজনের মৃত্যদণ্ডের রায় হয়েছিল। ভারতের আইন অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্টে চূড়ান্ত আবেদন এবং রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমাপ্রার্থনার আবেদন খারিজ হওয়ার আগ পর্যন্ত কারও মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা যায় না। নির্ভয়াকাণ্ডে মোট ৬জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এর মধ্যে ২০১৩ সালের মার্চে জেলের ভেতর রাম সিং নামে এক সন্দেহভাজনের মৃতদেহ পাওয়া যায়। সন্দেহভাজন অপ্রাপ্তবয়স্ক এক বালক ৩ বছর সংশোধনাগারে থাকার পর ২০১৫ সালে ছাড়া পায়। মৃত্যু পরোয়ানা জারির পরপরই দণ্ডপ্রাপ্ত দুইজন সুপ্রিম কোর্টে ফাঁসি ঠেকানোর জন্য আবেদন করেছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। ভারতে এর আগে ২০০৪ সালে চারজনের ফাঁসি হয়েছিল। দেশটিতে সর্বশেষ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়েছিল ২০১৫ সালে, ইয়াকুব মেমনের। মেমন ১৯৯৩ সালের মুম্বাই বোমা হামলায় অর্থায়নের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন।

Print প্রিন্ট উপোযোগী ভার্সন



Login to comment..
New user? Register..