কৃষক সম্মেলনে ডাক

গ্রামে গ্রামে ছড়িয়ে দাও সংগ্রামের মশাল

খুলনা থেকে, এস এম চন্দন : ‘সভ্যতার নির্মাণ যাদের হাতে, সেই কৃষকসমাজের বঞ্চণার ইতিহাস শেষ হয়না কোনো সরকারের আমলেই। তাই সরকার পরিবর্তনের আশা নয়, রাষ্ট্রক্ষমতায় কৃষক-শ্রমিকের বিপ্লবী সরকার কায়েমই হতে পারে এই সমস্যার সঠিক সমাধান’; বাংলাদেশ কৃষক সমিতির ত্রয়োদশ জাতীয় সম্মেলনের বক্তাদের সকলের এটাই ছিলো মূল কথা। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি খুলনা মহানগরীর ঐতিহাসিক শহীদ হাদিস পার্কে দেশি-বিদেশি কৃষক নেতা-কর্মীসহ কৃষক সমিতির ভ্রাতৃপ্রতীম বিভিন্ন গণসংগঠনের হাজার দশেকের বেশি মানুষের সরব উপস্থিতি আর প্রাণবন্ত স্লোগানে সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রবীণ কৃষকনেতা আব্দুল..

বিস্তারিত

সভাপতি এস এম সবুর, চন্দন সা. সম্পাদক ৫০ সদস্যের নতুন কমিটি

একতা প্রতিবেদক : এস এম সবুরকে সভাপতি ও কাজী সাজ্জাদ জহির চন্দনকে সাধারণ সম্পাদক করে সম্মেলন পরবর্তী কাউন্সিলের মাধ্যমে ৫০ সদস্য বিশিষ্ট কৃষক সমিতির নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি নির্বাচিত হয়েছে। কমিটিতে সহ-সভাপতি হয়েছেন- নুরুর রহমান সেলিম, আজাহারুল ইসলাম আরজু, আলতাফ হোসাইন, বিপ্লব চাকী, নিমাই গাঙ্গুলী, সোহরাব হোসেন, নিতাই গাইন আতাউর রহমান কালু, পুলক দাশ। আবিদ হোসেন ও সুকান্ত শফি চৌধুরী কমল নতুন কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পুনঃনির্বাচিত হন জাহিদ হোসেন খান। কমিটির নির্বাহী সদস্য হয়েছেন- রোমান হায়দার, মানবেন্দ্র..

বিস্তারিত

‘সংগ্রাম ভাগ হয় না’

খুলনা থেকে ফিরে, জাহিদুল ইসলাম সজীব : কমরেড জসিমউদ্দিন মন্ডল কোনো সম্মেলনে বক্তৃতার শুরুতে বলতেন, ‘আমি এখানে দেখতে এসেছি, কত ছেলেমেয়ে হয়, কত যুবকরা, যুবতীরা আসে।’ খুলনায় অনুষ্ঠিত কৃষক সমিতির ত্রয়োদশ জাতীয় সম্মেলনে আমারা কিছু তরুণ গিয়েছিলাম দেখতে- কত লোক হয়, কত কৃষক আসে, কত বড় মিছিল হয়। পুলিশি যন্ত্রণা : ১৫ তারিখ সকালে পৌঁছেই শুনলাম সম্মেলনস্থলের বাইরের মাইকগুলো খুলে ফেলতে বলছে পুলিশ। যদিও সম্মেলনের জন্য যাবতীয় প্রশাসনিক আনুষ্ঠানিকতা অনেক আগেই সম্পন্ন করা হয়েছে। স্থানীয় কয়েকজন কমরেডের সাথে কথা বলে বুঝতে..

বিস্তারিত

‘একুশের’ অমরত্ব ও বিশ্বজনীনতা

মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম : ইতিহাস কখনো শুধু একটি মাত্র একরৈখিক পথ ধরে অগ্রসর হয় না। তার অগ্রগতির পথে থাকে বিপ্লবী উল্লম্ফনের অধ্যায়। কালের যাত্রাপথে এমন কিছু দিনের আগমন ঘটে যা ‘চলতি হাওয়ার’ মোড় ঘুরিয়ে দিতে স্বক্ষম হয়। ক্যালেন্ডারের পাতার গতানুগতিক সরল সময়ের হিসেবকে অতিক্রম করে সেসব দিন তখন অর্জন করে ‘ঐতিহাসিক’ তাৎপর্য। এসব ‘ঐতিহাসিক দিনের’ অস্তিত্ব তার ২৪ ঘণ্টার আয়ুষ্কালের মধ্যেই নিঃশেষ হয়ে যায় না। দিন-মাস-বছর পরিক্রমায় যুগ যুগ ধরে তা জীবন্ত রূপে অস্তিত্বমান থাকে। পরবর্তী ইতিহাস রচনায় প্রেরণা ও..

বিস্তারিত

বাঙালি জাতির ঐক্যের প্রতীক

মো. শাহ আলম : পাকিস্তানের জন্মে বাঙালি মুসলমানের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা ছিল। পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়াশীল শাসকগোষ্ঠী যখন বাঙালির ভাষা ও সংস্কৃতির উপর আক্রমণ শুরু করে তখন ১৯৫২-এর একুশে ফেব্রুয়ারিতে বাঙালিরা ভাষাভিত্তিক জাতীয় ঐক্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নতুন করে যাত্রা শুরু করে। তাই একুশ বাঙালি জাতির ঐক্যের প্রতীক। ১৯৪৭ সালে ২০০ বছর ব্রিটিশ উপনিবেশিক শাসনের পর ভারত স্বাধীনতা লাভ করে। কিন্তু ভারত বিভক্তির মধ্য দিয়ে জন্ম নেয় দুটি রাষ্ট্রের। পাকিস্তান ও ইন্ডিয়ার। সাম্প্রদায়িক দ্বি-জাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে জন্ম নেয় কৃত্রিম রাষ্ট্র পাকিস্তানের। দ্বি-জাতি তত্ত্বের মূল..

বিস্তারিত

ভাষা আন্দোলন চেতনার বহ্নিশিখা

মৃণাল চৌধুরী : একুশ মানে মাথা নত না করা। একুশ হলো সাহসী যৌবনের বহ্নিশিখা। একুশের রক্ত সিঁড়ি পাড়ি দিয়ে এসেছে মাতৃভূমির স্বাধীনতা। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ভিত্তিভূমি হলো মহান একুশে ফেব্রুয়ারি। একুশ আমার প্রতিবাদের ভাষা। মহান একুশ বাঙালি জাতির শপথের দিন। ‘১৯৫২’ সনের রাজপথ রাঙানো মহান একুশের উদ্দীপনায় ‘৫৪’ তে যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ‘৫৮’তে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন, ‘৬২’র শিক্ষা আন্দোলন, ‘৬৬’র ৬ দফা, ‘৬৯’ এর গণঅভ্যুত্থান, ‘৭০’ এর পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ নির্বাচন এবং ‘৭১’ এর বীর বাঙালির অস্ত্রধারণ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয় অর্জন। পাকিস্তানের..

বিস্তারিত

২১’ মানে মাথা নত না করা

সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ : একুশে ফেব্রুয়ারি মহান ‘শহীদ দিবস’ ও ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’। বাঙালি জনগণের কাছে একাধারে একটি শোকাবহ-মর্মান্তিক এবং একই সাথে গৌরবোজ্জ্বল দিন। তদানিন্তন পূর্ববঙ্গ তথা আজকের বাংলাদেশের মানুষ পাকিস্তান সৃষ্টির পর পরই মাতৃভাষা বাংলার মর্যাদা ও বাংলা ভাষাভাষি জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার দাবি করে আসছিল। ১৯৪৭-৪৮ সালে এই দাবি ছাত্র ও শিক্ষিত জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও ১৯৫২ সালে পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের মুখের ভাষা বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দানের দাবিতে আন্দোলন ব্যাপক আকার ধারণ করে। ১৯৫২ সালের ২১..

বিস্তারিত

একুশের চেতনার উল্টোপথে যাত্রা

এ এন রাশেদা : একুশের চেতনা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার আজ বড়ই দুর্দিন। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী দু-জন সামরিক কর্মকর্তা প্রায়শঃই টেলিভিশনে আলাপচারিতায় এসে সদর্ভে ঘোষণা করেন– “মুক্তিযুদ্ধে চেতনা আবার কি ছিল? পাকিস্তানী সৈন্যরা আমাদের আক্রমণ করেছিল তাই পালিয়ে যেয়ে যুদ্ধে যোগদান করেছি। চেতনা-টেতনা বলে কিছু ছিলো না।” বিজয়ের এতটা বছর পর অনেকের মুখেই–এ কথা শুনতে হচ্ছে। এরা সামরিক কর্মকর্তা। কিন্তু বেসামরিক সুবিধাভোগী শ্রেণির মুখেও ঐ একই কথা শুনতে পাওয়া যায়। উচ্চবিত্তের অনেকেই তখন পাক বাহিনীর সাথে সখ্যতা রেখে চলেছে– তাদের বিত্ত-বৈভব অক্ষুণ্ন রাখার..

বিস্তারিত

জাতি ও ভাষা সমস্যা এবং মার্কসবাদ

ডা. মনোজ দাশ : মার্কসবাদ জাতি ও ভাষা সমস্যাকে সুস্পষ্টরূপে বিবেচনা ও সমাধানের দিকনির্দেশনা প্রদান করে। মার্কস ও এঙ্গেলস জাতি সমস্যা নিয়ে মার্কসবাদী তত্ত্বের সূত্রপাত করেন। আর লেনিন এ ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে জাতি ও ভাষা সমস্যা নিয়ে মার্কসবাদী তত্ত্বের বিকাশ ঘটান। জাতি ও ভাষা সমস্যা নিয়ে মার্কসবাদী এ তত্ত্বের ওপর ভিত্তি করেই আমাদের জাতিগত আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকারের প্রশ্নটিকে বিচার-বিশ্লেষণ করতে হবে। ১৮৪৭ সালের ২৯ নভেম্বর পোলিশ অভ্যুত্থানের ১৭তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে লন্ডনে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক এক সভায় এঙ্গেলস বলেছিলেন-‘অপর জাতির ওপর নিপীড়ন চালিয়ে যাওয়া..

বিস্তারিত

প্রশ্ন ফাঁস থামছে না

একতা প্রতিবেদক : একের পর এক বাগাড়ম্বরের পরও প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে পারছে না শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত সব পরীক্ষার প্রশ্নই পরীক্ষা শুরুর আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। বিভিন্ন গণমাধ্যম জানাচ্ছে, বাংলা প্রথম পত্রের বহুনির্বাচনি অভীক্ষার ‘খ’ সেট পরীক্ষার প্রশ্ন ও ফেসবুকে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের হুবহু মিল ছিল। পরীক্ষা শুরুর একঘণ্টা আগেই তা ফেসবুকে পাওয়া যায়। এরপর ৩ ফেব্রুয়ারি সকালে পরীক্ষা শুরুর প্রায় ঘণ্টাখানেক আগে বাংলা দ্বিতীয় পত্রের নৈর্ব্যক্তিক (বহুনির্বচনি) অভীক্ষার ‘খ’ সেটের উত্তরসহ প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়। ৫..

বিস্তারিত

প্রাণ-প্রকৃতি ধ্বংস করে উন্নয়ন জনস্বার্থের পক্ষে নয়

৯ মার্চ খুলনায় উপকূলীয় কনভেনশন

একতা প্রতিবেদক : তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি অবিলম্বে ‘সুন্দরবনবিনাশী রামপাল প্রকল্প বাতিল, বঙ্গোপসাগরে গ্যাস অনুসন্ধানে জাতীয় সক্ষমতার বিকাশ, রাষ্ট্রায়ত্ব বিদ্যুৎ খাত রক্ষা, জাতীয় কমিটির বিকল্প প্রস্তাবনা নিয়ে আলোচনা শুরু-বাস্তাবায়ন ও ফুলবাড়ীতে জাতীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। দাবি বাস্তবায়নে আগামী ৯ মার্চ খুলনায় উপকূলীয় কনভেনশনেরও ঘোষণা দিয়েছে তারা। গত ১২ ফেব্রুয়ারি বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশ থেকে তারা এ ঘোষণা দেন। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ,..

বিস্তারিত

বার্লিন ঘোষণা ও কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প

মো. সেলিমুজ্জামান ভূঁইয়া : গত বছরের ১৯ এবং ২০ আগস্ট বার্লিনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল তেল গ্যাস বিদ্যুৎ বন্দর খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটি আয়োজিত সুন্দরবন রক্ষা ও পরিবেশ বিষয়ক ইউরোপিয়ান সম্মেলন। বাংলাদেশসহ ইউরোপের ১০টি দেশ থেকে ১৩০ জন প্রতিনিধি এ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় কমিটির অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)-র রুহিন হোসেন প্রিন্সসহ বাংলাদেশের একাদিক বামপন্থি রাজনৈতিক দল ও পরিবেশবাদী সংগঠন এ সম্মেলনে প্রতিনিধিত্ব করেন। বৃটেনের তেল-গ্যাস বিদ্যুৎ বন্দর খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটির সভাপতিসহ আমরা ১০ জনও..

বিস্তারিত

নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী ওলি, সিপিবির শুভেচ্ছা

একতা প্রতিবেদক : নির্বাচনের দুই মাস পর কমিউনিস্ট পার্টি অব নেপাল (মার্ক্সবাদী ও লেনিনবাদী) সিপিএন-ইউএমএলের প্রধান খাড়গা প্রসাদ (কে পি) শর্মা ওলি ১৫ ফেব্রুয়ারি নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন। গত নভেম্বর ও ডিসেম্বরে দুই পর্বে অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক নির্বাচনে জয়ী হয় সিপিএন-ইউএমএলের নেতৃত্বাধীন বাম মোর্চা। তবে বিগত দুই মাস ধরে ক্ষমতা হস্তান্তরে ক্ষমতাসীন নেপালি কংগ্রেস গড়িমসি করছিল। কে পি শর্মা ওলি এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন। তবে নতুন সংবিধানে প্রথম নির্বাচনের পর প্রথম প্রধানমন্ত্রী হলেন এক..

বিস্তারিত
আন্তর্জাতিক
নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের ভূমিকায় উদ্বেগ
বিশ্বে প্রতি ছয় শিশুর একজন ‘সংঘাতের কবলে’
৭ দিনের দুনিয়া
অষ্টম বামফ্রন্ট সরকারের আশায় ত্রিপুরা
কমরেড মহম্মদ আমিনের জীবনাবসান
চলে গেলেন আসমা জাহাঙ্গীর
নেতানিয়াহুর নামে মামলার সুপারিশ
পশ্চিমবঙ্গে ছাত্র বিক্ষোভে পুলিশি হামলা
দ. আফ্রিকার নতুন রাষ্ট্রপতি রামাফোসা
সম্পাদকীয়
যেন অহর্নিশ থাকে একুশের চেতনা
বিশেষ রচনা
একুশ বাঙালি জাতির ঐক্যের প্রতীক
‘একুশের’ অমরত্ব ও বিশ্বজনীনতা
একুশের চেতনার উল্টোপথে যাত্রা
একুশ মানে মাথা নত না করা
জাতি ও ভাষা সমস্যা এবং মার্কসবাদ
ভাষা আন্দোলন চেতনার বহ্নিশিখা
শিল্প সাহিত্য সংস্কৃতি
‘আমার বোনের রক্তে রাঙানো...’
সস্যুরের ভাষাতত্ত্ব
ভাষা দিবসের ইস্তেহার
একটা ই-কারের জন্য বাড়ি যাওয়া হচ্ছে না
অপেক্ষার একটি দিন
সংগঠন সংবাদ
স্মরণ
ছাত্র ইউনিয়ন
কৃষক সমিতি
ইরানে হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে বিশ্বের কমিউনিস্ট ও ওয়ার্কার্স পার্টি
দ্বি-শত বর্ষে কাল মার্কস
ক্ষেতমজুর সমিতি
সিপিবি
সংগঠন সংবাদ
নোটিশ
শোক
শেষের পাতা
গৌরনদীতে ভবনঘেঁষা বৈদ্যুতিক তার যেন মরণফাঁদ
দখলে দূষণে স্রোতস্বিনী চিত্রার অবস্থা শোচনীয়
তুরাগতীর থেকে মাটি ও বালু উত্তোলনের অভিযোগ
আলোকচিত্রী রতন দাসের ক্যামেরায় কৃষক সমিতির জাতীয় সম্মেলন
রাখাইনে খাদ্য সংকট আরো রোহিঙ্গা আসছে
চারণভূমি হারিয়ে বিপাকে দরিদ্র খামারিরা
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ভুট্টা আবাদ বাড়ছে
ভালবাসা দিবস দিয়ে স্বৈরাচার দিবস আড়াল